Winter special : এই শীতে উষ্ণ থাকতে পান করুন মশলা চা!

এই মশলা-চা গরম গরম পকোড়ার সঙ্গে অপূর্ব।

67
Winter special
Social Share

Winter special :বাঙালি চিরকালের চা-প্রেমী। আর এই শীতকালে তো চা আরও বেশি জরুরি। শরীর-মন তরতাজা রাখতে চায়ের কোনও বিকল্প নেই। শীতে চায়ের মৌতাত আরও বেশি করে আকর্ষণ করে।

এই সময় অবশ্য চা পানের ক্ষেত্রে একটু বদল আনতে পরামর্শ দিচ্ছেন শেফরা। তাঁরা বলছেন, প্রথাগত ভাবেই চা খান এই সময়ে। তবে চায়ে শুধু একটু বিশেষ মশলা যোগ করুন।

মশলাটা হল– শুকনো আদা, মরিচ, ছোট এলাচ, দারুচিনি। সমস্ত একসঙ্গে গুঁড়ো করে নিয়ে মিশ্রণটা অন্য পাত্রে রাখতে হবে।

এবার শুরু করুন চা বানানো। প্রথমে প্রথামতো জল গরম করতে হবে। তাতে দু’চামচ চা দিতে হবে। পরে এত দিতে হবে আগে থেকে তৈরি করে রাখা মশলা ১ চামচ এবং প্রয়োজনমতো বা স্বাদমতো চিনি। এই মিশ্রণটা খানিকটা ফুটে গেলে এতে ১ কাপ দুধ যোগ করতে হবে। ৩-৪ মিনিট ফোটাতে হবে। ব্যস! প্রস্তুত মশলা চা।

এবার এই মশলা-চা গরম গরম পকোড়ার সঙ্গে অপূর্ব। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায় এই চা-পকোড়ার কোনও বিকল্প নেই। বিশেষত এই শীতের দিনের সন্ধ্যায় কোনও আড্ডায় এই চায়ে চুমুক দিলে তা যেমন মুডটা এক নিমেষে তৈরি করে দেবে, তেমনই শরীরে একসঙ্গে ঢুকে পড়বে অনেকগুলি জরুরি উপাদান। যা প্রকারান্তরে ঠান্ডার সমস্যাগুলির সঙ্গে লড়তে সাহায্য করবে শরীরকে।

Winter special :বাঙালি চিরকালের চা-প্রেমী। আর এই শীতকালে তো চা আরও বেশি জরুরি। শরীর-মন তরতাজা রাখতে চায়ের কোনও বিকল্প নেই। শীতে চায়ের মৌতাত আরও বেশি করে আকর্ষণ করে।

এই সময় অবশ্য চা পানের ক্ষেত্রে একটু বদল আনতে পরামর্শ দিচ্ছেন শেফরা। তাঁরা বলছেন, প্রথাগত ভাবেই চা খান এই সময়ে। তবে চায়ে শুধু একটু বিশেষ মশলা যোগ করুন।

মশলাটা হল– শুকনো আদা, মরিচ, ছোট এলাচ, দারুচিনি। সমস্ত একসঙ্গে গুঁড়ো করে নিয়ে মিশ্রণটা অন্য পাত্রে রাখতে হবে।

এবার শুরু করুন চা বানানো। প্রথমে প্রথামতো জল গরম করতে হবে। তাতে দু’চামচ চা দিতে হবে। পরে এত দিতে হবে আগে থেকে তৈরি করে রাখা মশলা ১ চামচ এবং প্রয়োজনমতো বা স্বাদমতো চিনি। এই মিশ্রণটা খানিকটা ফুটে গেলে এতে ১ কাপ দুধ যোগ করতে হবে। ৩-৪ মিনিট ফোটাতে হবে। ব্যস! প্রস্তুত মশলা চা।

এবার এই মশলা-চা গরম গরম পকোড়ার সঙ্গে অপূর্ব। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায় এই চা-পকোড়ার কোনও বিকল্প নেই। বিশেষত এই শীতের দিনের সন্ধ্যায় কোনও আড্ডায় এই চায়ে চুমুক দিলে তা যেমন মুডটা এক নিমেষে তৈরি করে দেবে, তেমনই শরীরে একসঙ্গে ঢুকে পড়বে অনেকগুলি জরুরি উপাদান। যা প্রকারান্তরে ঠান্ডার সমস্যাগুলির সঙ্গে লড়তে সাহায্য করবে শরীরকে।