নৌকার মনোনয়ন পেয়ে যা বললেন আরফানুল হক রিফাত

সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষ কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মেয়র পদের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন আরফানুল হক রিফাত। রিফাত কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদে রয়েছেন। রিফাতের ওপর আস্থা রাখায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগকে ধন্যবাদ জানিয়েছে স্থানীয় নেতারা। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আরফানুল হত রিফাত।

এদিকে, কুসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণায় স্থানীয় নেতাকর্মীদেরকে উল্লাস করতে দেখা গেছে। তাদের প্রত্যাশা, গত দুই নির্বাচনে কুসিকের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী, এবার তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়ায় নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী বিজয়ী হবেন বিপুল ভোটে।

কুমিল্লা সিটি কর্পরেশন নির্বাচনে নৌকার মাঝি আরফানুল হক রিফাত কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের বিশ্বস্ত হিসেবে সকলের কাছে পরিচিত।

শুক্রবার সন্ধ্যায় গণভবনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে সভাপতিত্ব করেন। মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার পর শুক্রবার রাত ৮টার দিকে আরফানুল হক রিফাত কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘নেত্রী (প্রধানমন্ত্রী) আমার ওপর আস্থা রেখেছেন, আমাকে নৌকা উপহার দিয়েছেন সেজন্য তার প্রতি কৃতজ্ঞ। আগামী ১৫ জুনের নির্বাচনে নৌকাকে জয়ী করে আমি তার আস্থার প্রতিফলন ঘটাতে পারবো আশা করছি। ’

রিফাত আরো বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হলে নগর ভবনকে দলীয় কার্যালয় বানাবো না। নগর ভবন সর্বদা নগরীর মানুষের জন্য খোলা থাকবে। আশা করছি, কুমিল্লা নগরীর মানুষ আমাকে ভোট দিয়ে তাদের কল্যানে কাজ করতে নির্বাচিত করবেন। ’

গত ২৫ এপ্রিল কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ১৭ মে। মনোনয়নপত্র বাছাই ১৯ মে ও প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৬ মে, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ মে এবং ভোট গ্রহণ ১৫ জুন।