জুয়ার আসর থেকে প্রাথমিকের প্রধান শিক্ষক, ইউপি সদস্যসহ আটক ১৪

অনলাইন ডেস্ক : জামালপুরের ইসলামপুরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ইউপি সদস্যসহ ১৪ জুয়াড়িকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখা-২। শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) রাত দশটার দিকে ইসলামপুর উপজেলার চিনাডুলী ইউনিয়ন পরিষদের পরিত্যাক্ত কক্ষ থেকে তাদের আটক করা হয়। রোববার (১৭ ডিসেম্বর) আটকৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

জেলা গোয়েন্দা শাখা-২ তথ্য মতে, ইসলামপুর উপজেলার চিনাডুলী ইউনিয়ন পরিষদের ওই পরিত্যক্ত কক্ষে দীর্ঘ দিন থেকে রমরমা জুয়ার আসর চলছে। শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা শাখা-২এর এসআই আবু রায়হানের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি দল ওই স্থানে অভিযান চালিয়ে হাতে নাতে ১৪ জুয়াড়িকে আটক করে। আটককৃতদের মধ্যে চিনাডুলী ইউপি সদস্য পশ্চিম বামনার মৃত রজব আলী আকন্দের ছেলে জহুরুল ইসলাম (৫২) এবং শিলদহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গুঠাইল আকন্দপাড়ার মৃত সাইদুর রহমানের ছেলে শামিমুল বাশার রয়েছেন।

আটককৃত অন্যান্য জুয়াড়িরা হলেন, পশ্চিম বামনার সেকান্দার আকন্দের ছেলে মো. খোকন ভট্টু আকন্দ (৪২), খাজা মিয়ার ছেলে আমির হোসেন (৩৫), মৃত মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে হাফিজুর রহমান (৪৫), মৃত তারু মিস্ত্রির ছেলে মনু শেখ (৫১), খাজা মিয়ার ছেলে আনোয়ার আকন্দ (৩৫), ইনতাজ আলীর ছেলে বাবু শেখ (৩৫), মৃত মকবুল হোসেনের ছেলে আলমাস মিয়া (৩৬) গুঠাইল বাজার মাঝিপাড়ার জিতেন নমঃ দাশের ছেলে জীবন নমঃ দাশ (৩৪), গুঠাইল নদীপাড়া গ্রামের মৃত ফকির আলীর ছেলে জালাল আকন্দ (৪০), গুঠাইল গিলাবাড়ীর মৃত বাদশা আলীর ছেলে জিয়াউর রহমান (৩৮), গুঠাইল আকন্দপাড়ার মৃত আব্দুল সবুর আকন্দের ছেলে হোসাইন মোশাহিদ আকন্দ (৪০) ও খসরু আকন্দের ছেলে সুমন আকন্দ (২২)।

জেলা গোয়েন্দা শাখা-২ অফিসার ইনচার্জ মো. সোহেল রানা জানান, আটককৃত জুয়াড়িদের নামে জুয়া আইনে মামলা হয়েছে। সম্মানিত আদালত আটককৃতদের জামিনে মুক্তি দিয়েছেন।

দেওয়ানগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন কান্তি চৌধুরী জানান, প্রতিবছর এই সময়টা এলে জুয়ার আড্ডা বেড়ে যায়। সমাজ থেকে জুয়া নির্মূলে থানা পুলিশের পাশাপাশি ডিবি পুলিশের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

পূর্বের খবরনির্বাচনী প্রচারণায় মানতে হবে যেসব বিধিনিষেধ
পরবর্তি খবরতেজগাঁওয়ে চলন্ত ট্রেনে আগুন, নিহত ৪