এরশাদের আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রাজু : সাত উপজেলার প্রার্থী ঘোষণা

 

বিরোধীদলীয় নেতা এইচ এম এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য রংপুর-৩ আস‌নে উপনির্বাচনে আওয়ামী লী‌গের প্রার্থী হি‌সে‌বে লড়বেন রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু।

শনিবার গণভবনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে দলের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভায় উপনির্বাচনে তার মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়।

সভা শেষে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

রংপুর-৩ আসনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে ছিলেন কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য চৌধুরী খালেকুজ্জামান, রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. সফিউর রহমান, রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রোজী রহমান প্রমুখ।

আগামী ৫ অক্টোবর রংপুর-৩ আসনে উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে। সেখানে সম্পূর্ণ ভোট হবে ইভিএমে।

রংপুরের সন্তান এরশাদ গণআন্দোলনের মুখে ক্ষমতা ছাড়তে বাধ্য হওয়ার পরও নিজের এলাকায় বরাবরই তুমুল জনপ্রিয় ছিলেন। ওই আসন থেকে বরাবরই বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে আসছিলেন তিনি।

গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মহাজোটের শরিক হিসেবে জাতীয় পার্টির সঙ্গে আসন ভাগাভাগি করে আওয়ামী লীগ। ফলে রংপুরের আসনে তাদের প্রার্থী ছিল না। তবে এবার তারা জোট শরিককে ছাড় দিচ্ছে না।

জাতীয় প্রার্থীর প্রার্থী ঠিক করতে গিয়ে দলের মধ্যে দেখা দিয়েছে চরম বিভেদ। সেখানে এরশাদের ছেলে সাদ এরশাদ প্রার্থী হতে চাইলেও বিরোধিতা করছেন রংপুরের নেতারা।

বিএনপিও এই উপনির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

স্থানীয় নির্বাচনের প্রার্থীরাও চূড়ান্ত

সাতটি উপজেলা, তিনটি পৌরসভা, ২৩ ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচ‌নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীও চুড়ান্ত হয়েছে শনিবার আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায়।

রাতে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মনোনীত প্রার্থীদের নাম জানানো হয়।

উপজেলা

চেয়ারম্যান পদে রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় মনোনয়ন পেয়েছেন নজরুল ইসলাম, খুলনা বিভাগের কোটচাঁদপুর উপজেলায় মোসাম্মৎ শরিফুন্নেছা মিকি, মহেশপুরে ময়জদ্দিন হামিদ, বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ, ময়মনসিংহ বিভাগের শেরপুর সদর উপজেলায় রফিকুল ইসলাম, নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম, চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলায় আব্দুল মোতালেব।

পৌরসভা

বরিশাল বিভাগের ভোলারয লালমোহন পৌরসভায় এমদাদুল ইসলাম তুহিন, ঢাকার দোহার পৌরসভায় নজরুল ইসলাম বাবুল, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌরসভায় শিব শংকর দাস আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী হচ্ছেন।

ইউনিয়ন পরিষদ

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নে রবিউল ইসলাম, বাজুবাঘা ইউনিয়নে ফজলুর রহমান, পাকুরিয়া ইউনিয়নে মেরাজুল ইসলাম, মনিগ্রামে সাইফুল ইসলাম।

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার পোরজনা ইউনিয়নে মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম মুকুল, হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বাচ্চু্।

নাটোর সদর উপজেলায় লক্ষ্মীপুর খালাবাড়িয়া ইউনিয়নে আলতাব হোসেন। নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার ইসবপুর ইউনিয়‌নে ইমরুল কায়েশ।

পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবালী উপজেলার চালিতাবুনিয়ায় জাহিদুর রহমান।

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার রূপগঞ্জ ইউনিয়নে ছালাউদ্দিন ভূঁইয়া, মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার তিল্লী ইউনিয়নে মোহাম্মদ মুরছালিন, জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার কুলকান্দি ইউনিয়নে জুবাইদুর রহমান, সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলাযর মিরপুর ইউনিয়নে আব্দুল কাদির।

হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়ন শেখ মুজাহিদ বিন ইসলাম। নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নে আব্দুল মুহিত চৌধুরী।

চট্টগ্রাম জেলার বোয়ালখালী উপজেলার কধুরখীল ইউনিয়নে শফিউল আজম, নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নে সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, ফেনী জেলার দাগনভূঁইয়া উপজেলার রামনগর ইউনিয়নে একেএম কামালউদ্দিন, দাগনভূঞা ইউনিয়নে বেলায়েত উল্লাহ।

বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নে তসলিম ইকবাল চৌধুরী, ঘুমধুম ইউনিয়নে একেএম জাহাঙ্গীর আজিজ, সোনাইছড়ি ইউনিয়ন এ্যানিং মারমা।