জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে মারধর করে এই হাল করেছেন রুমমেট!

ভারতের টেলিভিশনের বেশ জনপ্রিয় মুখ তিনি। ‘স্পিটসভিলা’য় অংশগ্রহণের পর ডোলি অরমানো কি, দিয়া অউর বাতি হাম, নামকরণ-সহ বেশ কিছু জনপ্রিয় ধারাবাহিকের বদৌলতে টেলিভিশন দর্শকদের হৃদয় কবজা করেছিলেন নলিনী নেগী। সেই জনপ্রিয় অভিনেত্রীই মারধরের অভিযোগ আনলেন তাঁর বান্ধবী ও মায়ের বিরুদ্ধে। গোটা ঘটনায় ওশিওয়ারা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নলিনী।

নলিনী এবং তাঁর বান্ধবী প্রীতি বেশ কয়েক বছর ধরে মুম্বাইতে একসঙ্গে থাকতেন। সম্প্রতি নলিনী ওশিওয়ারার একটি আলাদা ফ্ল্যাটে থাকতে শুরু করেন। তবে অন্য কোথাও থাকার জায়গা না পেয়ে প্রীতি দিন কয়েক নলিনীর কাছে থাকার জন্য অনুরোধ করেন। তবে অভিনেত্রী বাবা-মা দিল্লি থেকে মুম্বাই এসে মেয়ের কাছে থাকবেন বলে প্রীতিকে ঘর খালি করে দিতে বলেন নলিনী। ও তাতে সম্মতি জানায়। কিন্তু এরপরই প্রীতির মা এসে গোলযোগ শুরু করে দেয়। এরপরের অভিযোগ আরও মারাত্মক।

অভিনেত্রী নলিনী কথায়, ‘কয়েকদিনের মধ্যেই প্রীতির মা আমার ফ্ল্যাটে আসেন। প্রথমটায় আমি ভেবেছিলাম ওকে নতুন ঘর খুঁজতে সাহায্য করতেই তিনি এসেছেন। কিন্তু না! গত সপ্তাহে আমি যখন আমার এক বন্ধুর সঙ্গে জিমে যাচ্ছিলাম, তখন উনি হঠাত্‍ই আমার সঙ্গে ঝগড়া শুরু করেন। উনি কী চাইছেন, আমি তা জানতে চাইলেও উনি ঝগড়া থামাতেই চাইছিলেন না! উলটে প্রীতিকে ডেকে ওর সামনে আমায় গালিগালাজ করতে থাকেন।

প্রীতিকে বলেন, আমি নাকি ওনাকে অসম্মানজনক কথা বলেছি। প্রীতিকে আমি সবটা বলতে যাব, তখনই একটা কাঁচ নিয়ে আমায় মারতে আসেন উনি। প্রীতি এবং ওর মা মিলে একপ্রকার আমার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ছিল এদিন। ওরা মেরেই ফেলছিল। আমি তো ভাবতেই পারছি না একজন মা হিসেবে এরকম আচরণ কীভাবে করতে পারেন কেউ!

পরে বুঝলাম, আমি যেহেতু অভিনেত্রী, তাই ওরা আমার মুখটাই ক্ষতবিক্ষত করে দিতে চাইছিল।’ ঘটনার পরই তড়িঘড়ি বান্ধবী প্রীতি ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে ওশিওয়ারা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নলিনী নেগী।