ফরাসি ফার্স্ট লেডিকে নিয়ে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের ‘অভদ্র’ মন্তব্যে তোলপাড়

সম্প্রতি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো ফ্রান্সের ফার্স্ট লেডি ব্রিজিত ম্যাঁক্রোকে নিয়ে উপহাস করেছেন। এক ফেসবুক পোস্টে ফরাসি ফার্স্ট লেডিকে নিয়ে ‘অভদ্র’ মন্তব্য করেন তিনি। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন  ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো।

জানা গেছে, বলসোনারোর এক সমর্থক ফেসবুক পোস্টে ফরাসি ফার্স্ট লেডি ব্রিজিত ম্যাঁক্রোর পাশাপাশি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টের স্ত্রী মিশেল বলসোনারোর (৩৭) ছবি পোস্ট করে লেখেন, ‘এখন আপনারা বুঝতে পারছেন ম্যাঁক্রো কেন বলসোনারোকে পীড়ন করছে’ ওই পোস্টের নিচে নিজে এসে মন্তব্য করেন বলসোনারো। তিনি লেখেন, ‘তাকে হেনস্তা করো না… হা হা হা’

১৫ আগস্ট থেকে জ্বলছে ‘ পৃথিবীর ফুসফুস’ খ্যাত ব্রাজিলের আমাজন জঙ্গল। আগুন ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো-র নীতিকে দায়ী করছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়। এদিকে, আমাজন জঙ্গলে আগুনের ঘটনা সামনে আসার পর থেকেই বাকযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েন ম্যাঁক্রো ও বলসোনারো। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান বলছে, এই বাকযুদ্ধ গত ৪০ বছরের মধ্যে ব্রাজিল ও ফ্রান্সের মধ্যে সবচেয়ে তীব্র কূটনৈতিক সংকট তৈরি করেছে।

আমাজনের আগুনকে আন্তর্জাতিক সংকট আখ্যা দিয়ে এই বনাঞ্চল রক্ষায় বিশ্বনেতাদের করণীয় ঠিক করার আহ্বান জানিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো। জবাবে ম্যাঁক্রোর বিরুদ্ধে উপনিবেশিক মানসিকতা ধারণের অভিযোগ তোলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট।

এক পর্যায়ে ফেসবুক পোষ্টে ফ্রান্সের ফার্স্ট লেডি ব্রিজিত ম্যাঁক্রোকে নিয়ে ওই মন্তব্য করেন  ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

এ বিষয়ে জি সেভেন শীর্ষ সম্মেলনের সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো বলেন, বলসোনারো আমার স্ত্রী সম্পর্কে অতিমাত্রায় অভদ্র মন্তব্য করেছেন। এটা দুঃখজনক। প্রথমত এটা তার জন্য দুঃখজনক, ব্রাজিলের জনগণের জন্যও দুঃখজনক’।

সোমবার জি সেভেন গ্রুপের সম্মেলন শেষে সংবাদ সম্মেলনে বলসোনারোর মন্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেন, তিনি আমার স্ত্রীকে নিয়ে খুবই অসম্মানজনক কথা বলেছেন। ব্রাজিলের জনগণের জন্য বিপুল সম্মান রয়েছে আর শুধু আশা করতে পারি তারা শিগগিরই এমন একজন প্রেসিডেন্ট পাবেন যিনি এর যোগ্য।

প্রসঙ্গত, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোর বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন থেকেই নারী, কৃষ্ণাঙ্গ এবং সংখ্যালঘুদের বিষয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করার অভিযোগ রয়েছে। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে পার্লামেন্টে এক উত্তপ্ত বিতর্কের সময় বামপন্থী নারী কংগ্রেস সদস্য মারিয়া দো রোসারিওকে অসম্মানজকভাবে আক্রমণ করেন বলসোনারো। তিনি বলেন, আমি তোমাকে ধর্ষণও করবো না কারণ তুমি এর যোগ্যও না’।

সূত্র : এএফপি, নিউজ এইটিন