মিশন মঙ্গল তৈরি বড় ঝুঁকি ছিল, বললেন অক্ষয় কুমার

 

বলিউড মহাকাশ অভিযান নিয়ে এখনও কোনও ছবি করেনি। তাই মিশন মঙ্গল-এর মত ছবিতে হাত দেওয়ায় ঝুঁকি ছিল। বললেন অক্ষয় কুমার।

স্বাধীনতা দিবসে মুক্তি পেয়েছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরোর মঙ্গল অভিযান নিয়ে তৈরি এই ছবিটি। অক্ষয় বলেছেন, তৈরির সময় অনেকে প্রশ্ন করেন, কত টাকা তুলতে পারবে এই ছবি, বড়জোর ষাট-সত্তর কোটি। কারণ এ ধরনের ছবি আগে কখনও হয়নি, এর বাজার কেমন কেউ জানে না।

সম্পূর্ণ বিজ্ঞানভিত্তিক ছবি লোকে কেমনভাবে নেবে তিনি জানতেন না, তাই ঝুঁকি ছিল অবশ্যই। কিন্তু বড় ঝুঁকি থাকলেও তা গ্রহণযোগ্য ছিল। অক্ষয় বলেছেন। তবে যেভাবে দর্শক ছবিটি পছন্দ করেছেন তাতে তিনি আপ্লুত। এতে বোঝা যাচ্ছে, এ ধরনের সম্পূর্ণ ভিন্ন গোত্রের ছবির জন্য বলিউড তৈরি।

হলিউড ১৪-১৫টা বিজ্ঞানভিত্তিক ছবি তৈরি করেছে কিন্তু বলিউডে এটাই প্রথম। অক্ষয় বলেছেন, গত রাতেও তিনি একটি সায়েন্স ফিকশন পড়েছেন, এ ধরনের বহু ছবি এখন তৈরি হবে। ছবিটি ছোটদের পছন্দ হয়েছে, তারা বাবা মাকে টেনে নিয়ে যাচ্ছে সিনেমা হলে, অর্থাৎ সপরিবারে দেখার মত ছবি।

তাঁদের লক্ষ্য ছিল, ছবিটি এমনভাবে তৈরি করা যাতে বিজ্ঞান বুঝতে অসুবিধে না হয়। মহাকাশ বিজ্ঞান তিনি বোঝেন না কিন্তু মিশন মঙ্গল এমনভাবে তৈরি যে তাঁরও বুঝতে অসুবিধে হয়নি কিছু।