জম্মু-কাশ্মীরে চিঠি পাঠানোও নিষিদ্ধ করলো মোদি সরকার

আপাতত জম্মু ও কাশ্মীরে কোনো চিঠি পাঠানো যাবে না। গতকাল সোমবার এমনই এক নির্দেশ এসে পৌঁছায় কলকাতায়। শুধু চিঠি নয়, নিষেধাজ্ঞা রয়েছে সব ধরনের পার্সেল নিয়েও। পূর্ব ভারতের পোস্টমাস্টার জেনারেল (মেল) নীরজ কুমারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি অভ্যন্তরীণ। এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করব না।

ডাক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, শুধু কলকাতা নয়, এই নির্দেশ পৌঁছেছে দেশের সর্বত্র। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, জম্মু ও কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতির নিরিখে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে, জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের মর্যাদা হারিয়ে ফেলার আগেই এই নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে এবং সেখানে জম্মু ও কাশ্মীরকে রাজ্য বলেই উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, এখন থেকে পরবর্তী নির্দেশ পর্যন্ত জম্মু ও কাশ্মীর সার্কেলের জন্য কোনও ধরনের ‘মেল’ বুক করা যাবে না। তার মধ্যে চিঠি যেমন রয়েছে, তেমনই সব ধরনের পার্সেলও রয়েছে। বেসরকারি ক্যুরিয়র সার্ভিসও আপাতত জম্মু ও কাশ্মীরে তাদের পরিষেবা বন্ধ রেখেছে বলে ডাক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে।

এই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, জম্মু ও কাশ্মীরের পথেও অনেক মেল থাকতে পারে। হয়তো কলকাতা থেকে দু’দিন আগেই কোনো চিঠি বা পার্সেল পাঠানো হয়েছে। সেটি এখন দিল্লিতে আটকে। এই ধরনের সব চিঠি ও পার্সেল আটকে রাখতে হবে বলে দিল্লির ডাক বিভাগের ডিরেক্টর (মেল অপারেশন) পবন সিংহের সই করা নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। সূত্র: আনন্দবাজার