কাশ্মীর নিয়ে ক্যাবিনেট বৈঠকের ডাক মোদির! বড় কিছু ঘটতে যাচ্ছে?

ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে উত্তেজনা বেড়ে গেছে। বড় কিছু হতে চলেছে জম্মু ও কাশ্মীরে? কেন নিয়ন্ত্রণরেখায় পাঠানো হলো বফর্স বাহিনী? এই প্রশ্নগুলোই এখন ভাবাচ্ছে গোটা ভারতকে দেশকে। যদিও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বা প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং কাশ্মীর নিয়ে এখনও মুখ খোলেননি। এরই মধ্যে জল্পনা বাড়িয়ে সোমবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ক্যাবিনেট বৈঠকের ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ক্যাবিনেট  বৈঠকের খবর প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে গেছে। তাহলে কি কাশ্মীর নিয়েই বড় কোন ঘোষণা করতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদী? জানাতে চলেছেন বড় কোন পদক্ষেপের কথা?

জানা গেছে, আজ সকালে দিল্লির লোককল্যাণ মার্গে কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেট মন্ত্রীদের হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এমনটাও শোনা যাচ্ছে, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে জম্মু-কাশ্মীর পরিদর্শনে যেতে পারেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। অপরদিকে কেরন সেক্টরের এপারে পড়ে থাকা ৪ জঙ্গির ছবি প্রকাশ সেনার। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার স্নাইপার, আইইডি ও পাক ছাপ মারা মাইন।

রাষ্ট্রপতি শাসনাধীনে থাকা জম্মু ও কাশ্মীরে মোদি সরকার কী করতে যাচ্ছে, কী করতে চাইছে, তার কোনও আন্দাজ অন্তত বিরোধীদের কাছে নেই।

এদিকে কাশ্মীরে অমরনাথের যাত্রাপথে পাকিস্তানি সেনারা ব্যবহার করে এমন রাইফেল ও ল্যান্ডমাইন পাওয়ার পরই অমরনাথ যাত্রী এবং পর্যটকদের অবিলম্বে উপত্যকা ছাড়তে বলা হয়েছে। ডাল লেকের হাউসবোট খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এলাকা ছেড়ে না বের হতে বলা হয়েছে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের। তীর্থযাত্রীদের ফিরিয়ে আনতে পাঠানো হয়েছে বিমানবাহিনীর সেনার বিশেষ বিমান। আরও পঁচিশ হাজার আধা সেনা শনিবারই কাশ্মীরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এক সঙ্গে এতো কিছু হওয়ার ফলে স্বাভাবিক ভাবেই জল্পনা তৈরি হয়েছে। রটছে গুজবও।