‘ত্রাণ বিতরণে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের স্থায়ী তালিকা করতে হবে’

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের স্থায়ী তালিকা করার জন্য সরকারকে প্রস্তাব দিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের। শনিবার কুড়িগ্রাম জেলার পাঁচগাছি ইউনিয়ন কলেজ মাঠে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এ প্রস্তাব দেন।

জিএম কাদের বলেন, প্রতিবছরই কুড়িগ্রাম ও রংপুরসহ উত্তরাঞ্চলের লাখ লাখ মানুষ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বন্যায় যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণের জন্য স্থায়ী তালিকা করতে হবে। বন্যার সময় তাদের কার্ড অনুযায়ী ত্রাণ পৌঁছে দিতে হবে।

সাবেক সংসদ সদস্য একেএম মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে জিএম কাদের আরও বলেন, প্রধান বিরোধী দল হিসেবে আমরা সাধ্যমত বন্যার্তদের পাশে দাঁড়িয়েছি। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সব সময় বন্যার্তদের পাশে ছিলেন। আমরাও তার দেখানো পথে দুর্গত মানুষদের সেবায় নিয়োজিত থাকব।

এসময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও সংসদে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা বন্যা নিয়ন্ত্রণে উত্তরাঞ্চলের সব নদ-নদীতে ড্রেজিং করতে সরকারের প্রতি আহবান জানান।

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ, জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা সাবেক রাষ্ট্রদূত মেজর (অব.) আশরাফ-উদ-দৌলা, ভাইস চেয়ারম্যান আহসান আদেলুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মমিনুল ইসলাম, জাতীয় পার্টি নেতা ডা. সেকান্দার আলী, ইউপি সদস্য এরশাদ, জাতীয় পার্টির কৃষিবিষয়ক সম্পাদক মো. হুমায়ুন খান, যুগ্ম দফতর সম্পাদক এমএ রাজ্জাক খান, কেন্দ্রীয় নেতা মাসুদুর রহমান চৌধুরী, মোহাম্মদ জাকির হোসেন মৃধা, ফারুক শেঠ, সোলেমান সামি, আনোয়ার হোসেন তোতা, নুরুল হক ও জাতীয় ছাত্রসমাজের সদস্য সচিব ফয়সাল দিদার দিপু।