ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় শিক্ষক গ্রেপ্তার

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার মাদলা মালিপাড়া আরআরএমইউ উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনায় আব্দুল মজিদ নামের ওই সহকারী শিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে অভিযুক্ত ওই শিক্ষক দোষী প্রমাণিত হওয়ার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি। শুক্রবার বিকেলে গ্রেপ্তারকৃত শিক্ষক আব্দুল মজিদকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

থানার পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ জানান, মেয়েটির বাবা থানায় অভিযোগ দেওয়ার পর থেকেই পুলিশ তাকে খুঁজছিল। কিন্তু সে পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হচ্ছিল না। পরে শেরপুর উপজেলার মহিপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

উল্লেখ্য, গত রবিবার উপজেলার মাদলা মালিপাড়া আরআরএমইউ উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ক্লাস রুমে শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। এ ঘটনায় স্থানীয়ভাবে তোলপাড় শুরু হয়। মঙ্গলবার ছাত্রীর বাবা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বরাবর অভিযোগ দিলে ওই দিন বিকেলে ম্যানেজিং কিমিটির বৈঠকে ওই শিক্ষককে সাময়িক ববখাস্ত করা হয় এবং কেন তাকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে না মর্মে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।