শ্বাসরোধে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয় ওয়ারীর শিশুটিকে

রাজধানীর ওয়ারীতে শ্বাসরোধ করে হত্যার আগে শিশু সায়মা আফরিনকে ধর্ষণ করা হয়েছিল।

নিহত শিশুর মরদেহের ময়নাতদন্ত করার পর শনিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, মেয়েটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়।

ওয়ারীর বনগ্রাম এলাকায় আটতলা একটি ভবনের ষষ্ঠ তলায় পরিবারের সঙ্গে থাকত সায়মা। খেলার কথা বলে শুক্রবার সন্ধ্যায় বাসা থেকে বের হয়েছিল ছয় বছরের শিশুটি। এরপর অনেক সময় গড়ালেও সে ফিরে না আসায় তাকে খুঁজতে শুরু করে বাবা-মা। পরে রাতে তাদের ভবনেরই আটতলার একটি ফাঁকা ফ্ল্যাটে গলায় দড়ি দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় পাওয়া যায় সায়মার নিথর দেহ।

এ ঘটনায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে জানিয়ে ওয়ারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, শিশুটিকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় ছয়জনকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে তাদের এখনও গ্রেফতার দেখানো হয়নি।