ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে ইরান

ইরানে নিযুক্ত ব্রিটিশ রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে তেহরান। বৃহস্পতিবার জিব্রালটার প্রণালিতে ইরানের একটি তেলবাহী জাহাজ আটকের পর এই ব্যবস্থা নেয় তেহরান।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, সকালের দিকে অপরিশোধিত তেলবাহী ওই জাহাজ জিব্রালটার প্রণালিতে আটক করে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। যুক্তরাজ্যের অভিযোগ, ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইরানের ওই তেলবাহী জাহাজটি সিরিয়ার দিকে যাচ্ছিল। তবে ইরান এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলছে, যুক্তরাজ্য সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে তাদের তেলবাহী জাহাজ আটক করেছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় টিভির বরাত দিয়ে বিবিসি বলছে, ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাবি বলেছেন, তাদের তেলবাহী জাহাজ অবৈধভাবে আটক করা হয়েছে। তাই ইরানে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের রাষ্ট্রদূত রবার্ট ম্যাকাইরকে তলব করা হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, জিব্রালটার প্রশাসনকে সহায়তা দিতে যুক্তরাজ্য থেকে ৩০ নৌসেনার একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। গোলাগুলি বা বড় ধরনের কোনো অঘটন ছাড়াই অভিযান শুরু করে ওই সেনাদল।

এদিকে স্পেনের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘গ্রেস-১ নামের ওই জাহাজ আটক করতে মার্কিন সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের অনুরোধ জানানো হয়েছিল।’

বিবিসির কূটনৈতিক প্রতিবেদক জোনাথন মার্কস বলছেন, জাহাজ আটকের মানে এই নয় যে যুক্তরাজ্য ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। বরং ব্রিটিশ সরকার এই আটকের মধ্য দিয়ে সিরিয়ার বিরুদ্ধে ইইউর নিষেধাজ্ঞা আরও কার্যকর করছে।