বোন নেই, বিচারকের আসনে কারিশমা

কারিনা কাপুর খান যে বড় পর্দার সীমানা পেরিয়ে ছোট পর্দায় পা রেখেছেন, সে তো পুরোনো খবর। ‘ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স’ অনুষ্ঠানের সপ্তম সিজনে বিচারকদের আসনে বসে কারিনা কাপুর খান যে সে শো আরও একটু বেশি আলোকিত করবেন, তা তো সবার জানা। নতুন কী? নতুন খবর হলো, কয়েকটা পর্বের শুটিং শেষে লন্ডনে উড়াল দিয়েছেন কারিনা কাপুর খান। বিচারকের পোশাক খুলে সেখানে তিনি হয়ে উঠেছেন পুলিশ। ‘আংরেজি মিডিয়াম’ ছবির শুটিং করছেন তিনি।

তা হলে বিচার করবে কে? বিচারকের আসন তো আর খালি রাখা যাবে না। জগতে শূন্যস্থান বলে তো কিছু নেই। সেই জায়গায় দেখা যাবে বড় বোন কারিশমা কাপুরকে। ছোটবেলায় নাকি কারিশমা যখন নাচতেন, তখন মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে দেখতেন কারিনা। বোনকে দেখেই তিনি নাচ ভালোবেসেছেন, নাচ শিখেছেন। তাই কারিশমার চেয়ে আর কেউ কারিনার চেয়ারে বসার যোগ্য না। তাই কারিনা যত দিন লন্ডনে শুটিং করবেন, তত দিন কার নাচ কেমন হলো, কারিনার চেয়ারে বসে তা বলবেন কারিশমা।

এই তো কিছুদিন আগে দুই বোন মিলে তাঁদের সন্তানদের নিয়ে খুব ঘুরলেন লন্ডনে। তারপর তাঁরা ফুরফুরে মেজাজে মন দিলেন নিজেদের কাজে। কিন্তু ‘ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স’ অনুষ্ঠানের কয়েকটি পর্বের শুটিং করে কারিনা উড়াল দেন লন্ডনে। বলিউড হাঙ্গামার এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সেখান থেকেই কারিনা জানিয়েছেন বিচারকের আসনে বড় বোনের বসা নিয়ে নিজের উচ্ছ্বাস।

কারিশমা কাপুরকে নিজের আসনে বসে বিচারকের দায়িত্ব পালন করতে দেখে দারুণ খুশি তিনি। একাধিকবার কারিনা নিজের সাফল্যের ভাগ দিয়েছেন বড় বোনকে। বলেছেন, ছোটবেলায় যখন কারিশমা নাচতেন, তখন মুগ্ধ হয়ে তাকিয়ে দেখতেন তিনি। এভাবেই নাচের প্রতি ভালোবাসা জন্মে তাঁর। তারপরই তিনি নাচ শেখেন।

কারিনা আরও জানিয়েছেন, কারিশমাই তাঁর আত্মবিশ্বাসের উৎস, সবচেয়ে কাছের বন্ধু আর জীবনের আদর্শ। কারিনার চেয়ারে বসার জন্য তাই কারিশমাই ‘পারফেক্ট’।

যা হোক, ‘ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স’ অনুষ্ঠানের শুটিং থেকে কারিশমা নিজের ইনস্টাগ্রামে তিনটি ছবি শেয়ার করেছেন। ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এই দেখো আমাকে, ডান্স ইন্ডিয়া ডান্সের শুটিং থেকে। আমার গর্জিয়াস বোনের আসনে বসতে যাচ্ছি আমি।’ আর তৃতীয় ছবিতে দেখা যায়, ঝলমলে কারিশমা অনুষ্ঠানের মঞ্চে নাচছেন। তার ক্যাপশনে কারিশমা লিখেছেন, ‘চলো, সবাই নাচি।’

ছবিগুলো দারুণ পছন্দ করেছে কারিশমার ভক্তরা। তাঁরা মন্তব্যে লিখেছেন, ‘এককথায় দুর্দান্ত।’ একজন তো আবার কারিশমাকে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেছেন, কারিশমার অনুপ্রেরণায় তিনি শরীরের যত্ন নেওয়া শুরু করেছেন। অনেকেই জানতে চেয়েছেন, কবে দেখা যাবে এই পর্ব। মোট কথা হলো, দুই বোন মিলে এই শোর তাপমাত্রা আর টিআরপির পারদ দুটোই বেশ ওপরে তুলবেন।

যা হোক, কারিনা এখন বলিউডের ব্যস্ততম তারকাদের একজন। অক্ষয় কুমারের বিপরীতে ‘গুড নিউজ’ ছবির কাজ শেষ করে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন ‘আংরেজি মিডিয়াম’ ছবিতে। সেটি শেষ করে শুরু করবেন আলিয়া ভাট, রণবীর সিং, জাহ্নবী কাপুর, ভূমি পেডনেকার, ভিকি কৌশলদের সঙ্গে ‘তখত’ ছবির কাজ। আর এসবের সঙ্গে সবচেয়ে বড় কাজ তো রয়েছেই। সেই বড় কাজ হলো ছোট নবাব তৈমুর আলী খান। কারিনা যে মা হিসেবে দশে দশ, তা কে না জানে!