জবিতে ৭ দফা দাবিতে উপাচার্য ভবন অবরোধ

৭ দফা দাবিতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও উপাচার্য ভবন অবরোধ করেছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ক্যাম্পাসের বিজ্ঞান ভবন চত্বর থেকে শিক্ষার্থীরা একটি মিছিল বের করে ভাস্কর্য চত্বর হয়ে কলা অনুষদ চত্বর হয়ে কাঁঠাল তলা প্রদক্ষিণ করে। এ সময় তারা ভিসি বিরোধী বিভিন্ন স্লোগানের পাশাপাশি অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের ৭ দফা মেনে নেয়ার আহ্বান জানান।

এরপর দুপুর ১টার দিকে শিক্ষার্থীরা উপাচার্য ভবনের কলাপসিপল গেট বন্ধ করে দিয়ে সেখানে অবস্থান নেয়। এতে করে ভিসি ভবন কার্যালয় ও প্রশাসনিক ভবনের সকল কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়।

আন্দোলনের আহ্বায়ক মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী রাইসুল ইসলাম নয়ন বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকাংশ শিক্ষক ও কর্মকর্তা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এসেছেন। ওনারা জানেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় আমাদের কতটুকু সুযোগ সুবিধা তারা দিচ্ছেন। এ সময় তিনি বলেন, অবিলম্বে আমাদের ৭ দফা দাবি মেনে নিতে হবে। আজকে আমরা ভিসি ভবন অবরোধ করেছি। দাবি মেনে না নিলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আরো কঠোর আন্দোলনে যাবে।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ক্যান্টিনের ভর্তুকি বাড়িয়ে খাবারের দাম কমাতে হবে ও মান উন্নয়ন করতে হবে, এক মাসের মধ্যে বাসের ডাবল শিফট চালু করতে হবে, আগামী চার মাসের মধ্যে জকসু নির্বাচন দিতে হবে, আগামী দুই মাসের মধ্যে ছাত্রী হলের কাজ শেষ করতে হবে, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৭০ শতাংশ শিক্ষক নিয়োগ দিতে হবে ও আবেদনের ক্ষেত্রে সিজিপিএ শর্ত শিথিল করে স্বচ্ছ নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে যোগ্যদের নিয়োগ দিতে হবে, জবির দ্বিতীয় ক্যাম্পাসের কাজ অবিলম্বে শুরু করতে হবে এবং গবেষণা খাতে শর্ত কমিয়ে বাজেট বাড়াতে হবে।