বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে বর আটক, এক মাসের কারাদণ্ড

দশম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের সব আয়োজন শেষ। বিয়ে পড়ানোর জন্য চলে এসেছেন বটতলা বায়তুর নূর জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা রফিকুল ইসলাম। এমন সময় মুঠোফোনে খবর পেয়ে পুলিশ নিয়ে এসে বাল্যবিয়ে ভেঙে দেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার।

গতকাল শুক্রবার রাতে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় বাল্যবিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান পাশা। এ ঘটনায় বরের এক মাসের কারাদণ্ড হয়েছে।

ওসি শাহজাহান পাশা বলেন, উপজেলার রাব্বী ইসলাম সোহাগের (২২) সঙ্গে বিয়ের আয়োজন চলছিল দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর। মুঠোফোনের মাধ্যমে এই বাল্যবিয়ের খবর পান উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার। সঙ্গে সঙ্গে তিনি পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিয়ে ভেঙে দেন। বর, কনে ও উভয় পরিবারকে উপজেলা পরিষদে তাঁর কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। রাত ৯টায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বরের এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। অন্যদের মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।