ডিজিটাল সেন্টার ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি: পলক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, ‘মাত্র ৮ বছরে ডিজিটাল সেন্টার হয়ে উঠেছে ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি। ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তাদেরকে প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল সন্তানের স্বীকৃতি দিয়েছেন। ডিজিটাল সেন্টার প্রতিষ্ঠার সুফল এখন দৃশ্যমান।

এটি প্রতিষ্ঠার ফলে যোগাযোগ, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ সকল খাতেই তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার লক্ষণীয়ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আগামীতে এসব সেন্টারকে ই-কমার্স হাব হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা এবং তথ্যপ্রযুক্তি কেন্দ্রিক প্রায়োগিক প্রশিক্ষণ আয়োজনের মাধ্যমে ই-গভর্ন্যান্স, মানবসম্পদ উন্নয়ন ও আইসিটি শিল্পের বিকাশে ডিজিটাল অর্থনীতির সক্রিয় অংশীদার হিসেবে গড়ে তোলা হবে।’

বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেট নগরীর একটি কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত সিলেট বিভাগীয় উদ্যোক্তা সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। পলক আরো বলেন, ‘২০২০ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী। এ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ডিজিটাল সেন্টারের ১শটি ডিজিটাল সেবা উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।’
সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এটুআই-এর উপসচিব ও লোকাল ডেভেলপমেন্ট স্পেশালিস্ট মো. পারভেজ হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন এটুআই-এর অতিরিক্ত সচিব ও প্রকল্প পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন এটুআই-এর উপসচিব ও ই-সার্ভিস স্পেশালিস্ট মোহাম্মদ আশরাফুল আমিন, ডিজিটাল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস ল্যাবের প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. তহরুল হাসান টুটুল প্রমুখ।