১৯ কোটি পাউন্ড দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত ইমরান খান ও বুশরা বিবি

রাওয়ালপিন্ডির একটি জবাবদিহি আদালত মঙ্গলবার পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও তার স্ত্রী বুশরা বিবিকে ১৯ কোটি পাউন্ডের দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত করেছেন। খবর ডন ডট কম।

ইমরান খান বর্তমানে আদিয়ালা কারাগারে বন্দী আছেন। কারাগারে শুনানির সভাপতিত্ব করেছেন বিচারক নাসির জাভেদ রানা। তিনি বিচারক মোহাম্মদ বশিরের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন।

ডিসেম্বরে ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরো (এনএবি) আল-কাদির ইউনিভার্সিটির সঙ্গে ইমরান খান ও তার স্ত্রীসহ আরও সাতজনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা দায়ের করেছিল।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে যে ইমরান ও বুশরা বিবি বাহরিয়া টাউন লিমিটেডের কাছ থেকে ৫০ বিলিয়ন রুপি বৈধ করার জন্য কোটি কোটি রুপি এবং অনেক জমি নিয়েছেন।

এনএবির দায়ের করা মামলায় বলা হয়েছে, ইমরান খান বাহরিয়া টাউন, করাচিতে জমি কেনার সময় পাকিস্তান রাষ্ট্রের অর্থ অবৈধভাবে ব্যবহার করেছেন। ন্যায্যতা ও তথ্য প্রদানের একাধিক সুযোগ দেওয়া সত্ত্বেও অভিযুক্ত ইচ্ছাকৃতভাবে অসৎ উদ্দেশ্য নিয়ে এক বা অন্য অজুহাতে তথ্য দিতে অস্বীকার করেছিল।

এই মামলায় সন্দেহভাজন তালিকায় মালিক রিয়াজ হুসেন ও তার ছেলে আহমেদ আলী রিয়াজ, মির্জা শেহজাদ আকবর এবং জুলফি বুখারি রয়েছেন। কিন্তু তদন্ত ও পরবর্তী আদালতের কার্যক্রমে যোগদান না করে তারা পলাতক ছিলেন। পরবর্তীতে তাদের ঘোষিত অপরাধী (পিও) ঘোষণা করা হয়েছিল।

পিটিআই প্রধান ইমরান খানের পত্নীর ঘনিষ্ঠ বন্ধু ফারহাত শাহজাদি এবং পিটিআই সরকারের অ্যাসেট রিকভারি ইউনিটের আইন বিশেষজ্ঞ জিয়াউল মুস্তফা নাসিমকেও পিও ঘোষণা করা হয়েছে। পরবর্তীকালে, ছয় অভিযুক্তের সমস্ত সম্পত্তি জব্দ করা হয়।

এস/ভি নিউজ

পূর্বের খবরসংরক্ষিত আসনের ৫০ নারী সংসদ সদস্যের গেজেট প্রকাশ
পরবর্তি খবরমোদির বঙ্গ সফরের আগেই কার্যকর CAA! তুঙ্গে জল্পনা