নৌযানে আগুনে নিহত ৮ জনই বাংলাদেশি, মিলেছে পরিচয়

ভূমধ্যসাগর দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার সময় তিউনিসিয়া উপকূলে নৌযানে আগুনে নিহত নয় অভিবাসনপ্রত্যাশীর আটজনই বাংলাদেশি বলে জানিয়েছে লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস। নিহত আরেকজন পাকিস্তানের নাগরিক। এছাড়া ওই ঘটনায় ২৭ বাংলাদেশি নাগরিককে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার প্রাথমিকভাবে নিহত ৮ বাংলাদেশির পরিচয় নিশ্চিত করেছে দূতাবাস। তারা হলেন, মাদারীপুরের সজল, নয়ন বিশ্বাস, মামুন শেখ, কাজি সজীব, কায়সার এবং গোপালগঞ্জের রিফাত, রাসেল ও ইমরুল কায়েস আপন।

আর মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মাদারীপুরের রাজৈর থানার আমগ্রাম ইউনিয়নের মনোরঞ্জন সরকারের ছেলে মনতোষ সরকার। এছাড়া পাসপোর্টবিহীন বাংলাদেশি রয়েছেন ৭ জন।

দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে, এ দুর্ঘটনায় উদ্ধার করা বাংলাদেশিদের সার্বিক কল্যাণ ও মৃত্যুবরণকারীদের তথ্য নিশ্চিতে দূতাবাসের একটি দল গতকাল সোমবার তিউনিসিয়ার জারজিস শহরে পৌঁছায়। পরে জীবিত উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে হতাহতদের প্রাথমিক পরিচয় নিশ্চিত করে দলের সদস্যরা।

দূতাবাসের এক কর্মকর্তা জানান, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি একটি অভিবাসী দল নৌকায় করে রাত সাড়ে ১১টায় (স্থানীয় সময়) লিবিয়ার জুয়ারা উপকূল থেকে ইউরোপের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। যাত্রাপথে নৌকাটি তিউনিসীয় উপকূলে গেলে মধ্যরাত ৪টা ৩০ মিনিটে নৌকাটিতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নৌকাটিতে মোট ৫৩ জন ছিলেন। এদের মধ্যে ৫২ জন যাত্রী এবং একজন ছিলেন চালক।

ত্রিপোলির বাংলাদেশ দূতাবাস জানায়, উদ্ধার বাংলাদেশি নাগরিকদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা এবং চিকিৎসা সেবা নিশ্চিতে দূতাবাস তিউনিসিয়ার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি এবং আইওএমের (আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা) সঙ্গে কাজ করছে।

এস/ভি নিউজ

পূর্বের খবরHigh Commission of India hosts event to promote India Bangladesh defence industry collaboration
পরবর্তি খবর‘একতরফা ডামি’ নির্বাচনের মাধ্যমে আবারও ক্ষমতা দখল করা হয়েছে: মির্জা ফখরুল