ইউক্রেনের প্রধান বিচারপতি গ্রেফতার

ঘুস নেওয়ার অভিযোগে ইউক্রেনের প্রধান বিচারপতি সেভেলোদ নায়াজিয়েভকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানী কিয়েভে প্রধান বিচারপতির সরকারি বাসভবন থেকে তাকে গ্রেফতার করে দেশটির আইন প্রয়োগকারী সংস্থা। খবর এএফপির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের দুর্নীতি দমন সংস্থা ন্যাশনাল অ্যান্টি-করাপশন ব্যুরো অব ইউক্রেনের (এনএবিউ) জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ওলেকসান্দর লেমেনকো।

পরে এনএবিইউর ফেসবুক পেজে এক পোস্টে বলা হয়, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সকালে সেভেলোদ নায়াজিয়েভের সরকারি বাসভবনে তল্লাশি অভিযান চালায় এনএবিইউ এবং দুর্নীতি সংক্রান্ত বিশেষ প্রসিকিউটর স্পেশাল অ্যান্টি-করাপশন প্রসিকিউটর (এসএপি) এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি সমন্বিত দল।

এনএবিইউর ফেসবুক পেজে আরও বলা হয়, ‘তল্লাশি অভিযানে তার বাড়ি থেকে ২৭ লাখ ডলার উদ্ধার করা হয়েছে। প্রধান বিচারপতি সেই অর্থের উৎস সম্পর্কে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এর পর তাকে গ্রেফতার করে। ওই অর্থও জব্দ করা হয়েছে।’

ওই পেজে আরও বলা হয়, সম্প্রতি বিচার বিভাগের দুর্নীতি দমনে মনোযোগ দিয়েছে জাতীয় দুর্নীতি দমন সংস্থা। প্রধান বিচারপতি ছাড়াও অন্তত ১৮ জন দুর্নীতিগ্রস্ত বিচারপতি ও বিচারক আছেন সংস্থার গোপন তালিকায়। ধীরে ধীরে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

দেশটির প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা সেরহি লেশচেঙ্কো টেলিগ্রামে বলেন, ইউক্রেনীয় দুর্নীতি দমন ব্যুরো এবং বিশেষায়িত দুর্নীতিবিরোধী প্রসিকিউটরের কার্যালয় তার বিরুদ্ধে ২৭ লাখ ডলার ঘুসগ্রহণের প্রমাণ পেয়েছে।

২০২১ সালের অক্টোবরে সুপ্রিমকোর্টের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন কেনিয়াজিয়েভ। এর আগে তিনি বিচারপতি ও আদালতের সচিব হিসেবে কাজ করেছেন।