ওমানে অসহায় জেল বন্দীদের জন্য ভিন্ন ধর্মী উদ্যোগ

173

সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ বিন সুলতান বিন হামুদ আল বুসাইদির তত্ত্বাবধানে ওমানি লয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন (ওএলএ) ফাক কুরবাহ ইনিশিয়েটিভের দশম সংস্করণ চালু করেছে। “কারণ আমরা বিশ্বাস করি যে প্রত্যেকেরই দ্বিতীয় সুযোগ প্রাপ্য” স্লোগানকে সামনে রেখে এই উদ্যোগের লক্ষ্য নাগরিক, বাণিজ্যিক, শরিয়া এবং শ্রম মামলায় কারাবন্দীদের মুক্তি দেওয়ার জন্য অনুদান সংগ্রহ করা। শনিবার (১৮ মার্চ) টাইমস অব ওমানের এক প্রতিবেদনে একথা বলা হয়।

উদ্বোধনী বক্তব্যে আল বুসাইদির বলেন, ‘আল্লাহর হুকুম মেনে, আমাদের নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উদারতা অনুসরণ করে এবং আমাদের ওমানি সমাজের সংহতি ও ঐক্যের প্রতিফলন ঘটিয়ে আমরা ওমানি আইনজীবী সমিতি আয়োজিত এবং সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের পৃষ্ঠপোষকতায় ফাক কুরবাহ ইনিশিয়েটিভ ২০২৩ এর দশম সংস্করণের উদ্বোধন করছি।

তিনি বলেন, আসুন আমরা হাত মেলাই এবং অভাবগ্রস্তদের সাহায্য করি, আসুন আমরা তাদের ত্রাণের কারণ হই, কারণ আমরা পবিত্র রমজান মাসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।

২০১২ সাল থেকে উদ্যোগটি ৪ হাজার ৯৬৯ বন্দীদের মুক্তিতে অবদান রেখেছে। উদ্যোগটি সমাজের সদস্যদের মধ্যে সংহতি এবং প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে যৌথ অংশীদারিত্বের ধারণাগুলোও জাগিয়ে তুলেছে।

 

ওএলএ’র চেয়ারম্যান ও এই উদ্যোগের তত্ত্বাবধায়ক মুহাম্মদ আল জাজ্জালি বলেন, আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হচ্ছে ইতিবাচক প্রভাব তৈরি করা এবং দীর্ঘ সময় ধরে কারাগারে থাকা মানুষদের একটি মূল্যবান সুযোগ দেওয়া। আমাদের অনুদান অন্যদের কষ্ট থেকে মুক্তি দিতে পারে এবং তাদের পরিবারকে আনন্দ ফিরিয়ে আনতে পারে। আমরা “ফাক কুরবাহ” উদ্যোগের দশম সংস্করণ চালু করতে পেরে গর্বিত, যা ওমানি সমাজের ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের উদারতা ছাড়া টেকসই হত না।

উল্লেখ্য, ফাক কুরবাহ ইনিশিয়েটিভ ২০২৩ সালের এপ্রিলের মাঝামাঝি পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। ওএলএ এই মানবিক উদ্যোগটিকে সারা বছর ধরে পরিচালিত একটি টেকসই প্রকল্পে রূপান্তরিত করার জন্য উন্মুখ।