ঢাকার আকাশে চক্কর খেয়ে কলকাতা নামলো ওমানের ফ্লাইট

135
ঢাকার

ঘন কুয়াশার কারণে মধ্যরাতে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামতে পারেনি আটটি ফ্লাইট। এদের মধ্যে সাতটি ফ্লাইট অবতরণের চেষ্টা করলেও কুয়াশার কারণে ভারতের কলকাতা বিমানবন্দরে চলে যায়। অপর ফ্লাইটটি ফেরে মালয়েশিয়ায়। সর্বশেষ সকাল ৭টা পর্যন্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। রোববার (৭ নভেম্বর) রাত ১২টার পর থেকে ঘন কুয়াশার কারণে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ফ্লাইট ওঠা-নামা ব্যাহত হয়।

বিমানবন্দর সূত্রে জানাগেছে, কুয়াশার কারণে রানওয়ের ভিজিবিলিটি (দৃশ্যমানতা) কম থাকায় সাতটি ফ্লাইট ঢাকায় নামতে না পেরে চট্টগ্রামে যাওয়ার পরিকল্পনা করে। তবে চট্টগ্রামে প্লেন রাখার জায়গা (পার্কিং) সংকট থাকায় তারা কলকাতা চলে যায়। এরমধ্যে ওমানের মাস্কাট থেকে আশা একটি ফ্লাইটও ঢাকার আকাশে চক্কর খেয়ে কলকাতা অবতরণ করে।

কুয়াশা পরিস্থিতির উন্নতি হলে ফ্লাইটগুলো ঢাকায় অবতরণ করবে এমনটি জানিয়েছে বিমানবন্দর। জানাগেছে, ঘন কুয়াশার কারণে ফ্লাইটগুলোর পাইলট অবতরণের আগে স্বচক্ষে রানওয়ে দেখতে পাচ্ছিলেন না। ফলে মাস্কাট থেকে সালাম এয়ারের ঢাকাগামী ফ্লাইট, বাহরাইন থেকে গালফ এয়ারের ফ্লাইট, দাম্মাম থেকে বিমানের, দুবাই থেকে ইউএস বাংলা, কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকাগামী বাটিক এয়ার, কুয়েত থেকে আসা কুয়েত এয়ারওয়েজ ও জাজিরা এয়ারওয়েজ কলকাতা চলে যায়।

পাশাপাশি এয়ার এশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে ঢাকাগামী একটি ফ্লাইট উড্ডয়নের পর ২ ঘণ্টা উড়ে কুয়াশাচ্ছন্ন আবহাওয়ার বিষয়ে জানতে পারে। পরে মাঝ আকাশ থেকে ফ্লাইটটি কুয়ালালামপুর ফিরে যায়। পাশাপাশি সৌদির জেদ্দা থেকে ঢাকাগামী একটি ফ্লাইট তাদের যাত্রা বাতিল করেছে।

একই কারণে ঢাকাগামী প্রায় ডজনখানেক ফ্লাইট নির্ধারিত সময়ে অবতরণ করতে পারছে না। বিমানবন্দর সূত্র জানায়, কুয়াশা কমে যাওয়ার পর আকাশে চক্কর দিতে থাকা ও কলকাতা থেকে আসা ফ্লাইটগুলোকে আগে অবতরণের সুযোগ দেওয়া হবে। এরপর ঢাকা থেকে বিভিন্ন গন্তব্যের ফ্লাইট উড্ডয়ন করতে দেওয়া হবে।

আড়ও পড়ুন: রাজধানীতে প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার