পদ্মা ও মেঘনা নামেই হচ্ছে দুই বিভাগ

2

অবশেষে দুই নদীর নামেই হতে যাচ্ছে দুটি প্রশাসনিক বিভাগ। বৃহত্তর ফরিদপুরের কয়েকটি জেলা নিয়ে ‘পদ্মা’ বিভাগ এবং কুমিল্লা ও আশপাশের জেলাগুলো নিয়ে ‘মেঘনা’ বিভাগ। আগামী রবিবার প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাসসংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) সভায় বিষয়টি অনুমোদন হতে পারে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পদ্মা বিভাগের পাঁচ জেলার মধ্যে রয়েছে ফরিদপুর, শরীয়তপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ ও মাদারীপুর। অন্যদিকে কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও চাঁদপুর এবং নোয়াখালী, ফেনী ও লক্ষ্মীপুর রয়েছে মেঘনা বিভাগে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব (নিকার অধিশাখা) মোহাম্মদ কায়কোবাদ খন্দকার বলেন, আগামী রবিবার নিকার বৈঠকে নতুন দুটি বিভাগ, পৌরসভা ও থানা গঠন এবং সম্প্রসারণের প্রস্তাব উপস্থাপন করা হবে। তবে অনুমোদন হবে কি না, এটা বৈঠকের পরে জানা যাবে।

বর্তমানে দেশে আটটি প্রশাসনিক বিভাগ রয়েছে। এগুলো হচ্ছে—ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ। নিকারের সায় পেলে পদ্মা ও মেঘনা নিয়ে বিভাগের সংখ্যা বেড়ে হবে ১০টি।

গত বছরই ‘মেঘনা’ নদীর নামে কুমিল্লা ও ‘পদ্মা’ নদীর নামে ফরিদপুর বিভাগ হবে বলে ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। গত বছরের ২১ অক্টোবর কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিভাগের বিষয়ে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। দুটি নদীর নামে দুটি বিভাগ বানাব। একটা পদ্মা, অন্যটা মেঘনা। এ সময় কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার দাবি জানান, কুমিল্লা নামে বিভাগ দেওয়ার। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী এর বিরোধিতা করে বলেন, ‘কু’ নাম দেব না। কুমিল্লা নামের সঙ্গে মোশতাকের নাম জড়িত।