বলিউড কি শেষ? কী বলছেন রাকুল

23

বিগত কয়েক বছর ধরে দেখা যাচ্ছে দক্ষিণের ছবিগুলো বলিউডের সিনেমার তুলনায় বেশ ভালো ব্যবসা করছে, শুধু দক্ষিণে নয়, হিন্দি বলয়েও ছবিটা এক। অন্যদিকে একাধিক বিগ বাজেট থেকে শুরু করে বড় বড় অভিনেতা থাকা হিন্দি ছবিও বক্স অফিসে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারছে না।  

কিছু ছবি তো কবে হলে আসছে আর কবে চলে যাচ্ছে কেউ টের পাচ্ছে না। ২০২২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একাধিক বলিউডের ছবি ফ্লপ করেছে বক্স অফিসে।

আর এখান থেকেই একটি বক্তব্য শোনা যাচ্ছে, বলিউড নাকি শেষ! আর সেখান থেকেই দক্ষিণের ছবির উত্থান শুরু হয়েছে। সম্প্রতি এই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী রাকুলপ্রীত সিং। রাকুলপ্রীত দক্ষিণ এবং বলিউড দুই জায়গাতেই সমান দক্ষতার সঙ্গে একাধিক ছবিতে কাজ করেছেন।

২০২২ সালের সব থেকে বেশি ব্যবসা করেছে এমন ১০টা ছবির দিকে যদি নজর রাখা যায়, তাহলে দেখা যাবে তার মধ্যে খালি ৪ ছবি বলিউডের। আর সেরা তিন ছবিই দক্ষিণের। এর মধ্যে রয়েছে কন্নড় ছবি কেজিএফ চ্যাপ্টার ২, তেলেগু ছবি আরআরআর এবং তামিল ছবি পন্নিয়ন সেলভান ১। এর মধ্যে কেজিএফ ২ এবং আরআরআর ছবি দুটোর হিন্দি ভার্সন যে পরিমাণ ব্যবসা করেছে সেই পরিমাণ ব্যবসা একাধিক বলিউডের ছবিও করতে পারেনি।

এই বিষয়ে ইন্ডিয়া টুডে কনকলেভে রাকুলপ্রীত সিং বলেন, সিনেমা হচ্ছে অনুভূতির ভাষা এখানে কোনও গণ্ডি নেই। একই সঙ্গে তিনি বলেন শ্রীদেবী থেকে তাবু এরা দক্ষিণের ছবিতে অভিনয় করেছেন। দক্ষিণের একাধিক ছবি নানান সময় রিমেক করা হয়েছে।  

আজ দক্ষিণের ছবি উন্নতি করছে বলে আমরা এই আলোচনা করছি- জানান রাকুলপ্রীত সিং।

বলিউড শেষ হয়ে গিয়েছে? এই বিষয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘এটা একটা সাময়িক ব্যাপার। মানুষ সেই সব বিষয় নিয়েই কথা বলেন যেগুলো কাজ করছে না। দক্ষিণে তো কত ছবি রিলিজ করছে, কিন্তু আমরা সেই ছবি নিয়েই কথা বলছি না। ‘ 

রকুলপ্রীত সিংয়ের মতে মহামারীর পর মানুষের পছন্দ পাল্টে গেছে। ‘এখানে দক্ষিণ বা বলিউড নেই, এখানে হচ্ছে একটাই জিনিস রয়েছে যে মানুষ কোন ধরনের সিনেমা পছন্দ করছেন।

২০০৯ সালে রাকুলপ্রীত সিং অভিনয় জগতে পা রাখেন কন্নড় ছবি গিল্লির মাধ্যমে। এছাড়া তিনি একাধিক তামিল, তেলেগু ভাষার ছবিতে কাজ করেছে। এরপর তিনি ২০১৪ সালে বলিউডে পা রাখেন। তাঁর বলিউডের প্রথম ছব ইয়ারিয়া। তাঁকে শেষবার দেখা গেছে থ্যাংক গড নামক ছবিটিতে।

হিন্দুস্তান টাইমস