পূর্ণ সম্মান রেখে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করতে চায় চীন

13

মৈত্রী সংগঠন ‘ইউনাইটেড স্টেটস চায়না রিলেশনস’-এর বার্ষিক নৈশভোজে গতকাল বৃহস্পতিবার অভিনন্দনবার্তায় প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং বলেছেন, শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে থেকে এবং একে অপরের প্রতি পূর্ণ সম্মান বজায় রেখে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করতে ইচ্ছুক বেইজিং।  

চীনে তৃতীয়বার প্রেসিডেন্ট হতে যাওয়া শি চিনপিং আরো বলেছেন, বর্তমানে বিশ্ব শান্তিপূর্ণ বা শান্ত নয়। বিশ্বশান্তি রক্ষায় এবং বিশ্বের উন্নয়নের জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও চীনকে এক হয়ে কাজ করতে হবে।

তিনি আরো বলেছেন, বিশ্বের প্রধান শক্তি হিসেবে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে যোগাযোগ ও স্থিতিশীলতা বাড়াতে হবে।

একসঙ্গে কাজ করলে শুধু তারা নিজেরাই লাভবান হবে, এমনটা নয়; বরং বিশ্বে স্থিতিশীলতা, শান্তি ও উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা সম্ভব হবে।  

শি চিনপিং আশা প্রকাশ করে বলেন, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বিষয়ক সংগঠনটি সম্পর্ক উন্নয়নে কার্যকর ও সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে।  

এদিকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বিশ্ব ‘সবচেয়ে বিপজ্জনক দশকের’ মুখোমুখি হয়েছে বলে সতর্ক করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এ সময় পশ্চিমের বিরুদ্ধেও ‘পরমাণু ব্ল্যাকমেইলের’ অভিযোগ করেন তিনি।  

পুতিন দাবি করেছেন, রাশিয়ার পাশ থেকে মিত্রদের জোরপূর্বক সরিয়ে দিতেই এ কাজ করেছে পশ্চিম। মস্কোতে বার্ষিক ভালদাই ফোরামে বক্তব্য দেওয়ার সময় এসব কথা বলেন পুতিন।

অন্যদিকে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি তার দেশের পূর্বাঞ্চলীয় শহর বাখমুত দখলের চেষ্টারত রুশ কমান্ডারদের ‘পাগলামির’ দায়ে অভিযুক্ত করেছেন।

প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, খারসন শহরে ইউক্রেনীয় সেনাদের অব্যাহত অগ্রগতি সত্ত্বেও সেখানে রাশিয়ার সেনাদের হামলা অব্যাহত রয়েছে। বাখমুতে হামলার ধরন সম্পর্কে জেলেনস্কি কিয়েভ থেকে দেওয়া তাঁর নিয়মিত রাত্রিকালীন ভাষণে বলেন, ‘এখানেই রুশ কমান্ডের পাগলামি সবচেয়ে স্পষ্ট। দিনের পর দিন, মাস ধরে তারা সেখানে মানুষকে মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। সর্বোচ্চ মাত্রার গোলাবর্ষণ চালিয়ে যাচ্ছে তারা। ’

সূত্র: এএফপি