ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে কাজ শুরু করলেন ঋষি সুনাক

33

 

ভিনিউজ ডেস্ক- প্রথম কোনো অশ্বেতাঙ্গ এবং অভিবাসী পরিবারের সন্তান ব্রিটেনের প্রধান একটি রাজনৈতিক দলের নেতা এবং সেই সাথে প্রধানমন্ত্রী হলেন।

সোমবার ঋষি সুনাক বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ব্রিটেনের ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা নির্বাচিত হবার পর আজ বাকিংহ্যাম প্রাসাদে তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন ব্রিটেনের রাজা তৃতীয় চার্লস । এর আগে গত সপ্তাহে এমপিদের অনাস্থার মুখে পূর্ববর্তী প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাস পদত্যাগের কথা ঘোষণা করেছিলেন।

আজ লন্ডনের ডাউনিং স্ট্রিটে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনের সামনে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তার প্রথম ভাষণে মি. সুনাক আস্থা ও স্থিতিশীলতা পুনপ্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার করেন।

তিনি সতর্ক করে দেন যে ব্রিটেন এখন এক “গভীর অর্থনৈতিক সংকটের” সম্মুখীন এবং তার পূর্বসুরীর কিছু ভুল তার সরকারকে সংশোধন করতে হবে এবং এ জন্য “কঠিন কিছু সিদ্ধান্ত” নিতে হবে।

তবে ব্রিটেনের বিরোধীদলগুলো ইতোমধ্যে নতুন সাধারণ নির্বাচন দেবার যে দাবি জানিয়েছে তা ঋষি সুনাক প্রত্যাখ্যান করেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ফরাসী প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রঁ এবং ইউরোপিয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লাইনসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারা পৃথক পৃথক বার্তায় ঋষি সুনাককে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

“ব্রিটেনের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের আশা নেই”, বলছে রাশিয়া
ইউক্রেনের জন্য সাহায্য অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী সুনাক। তিনি বলেন, ভ্লাদিমির পুতিনের কারণে সারা বিশ্বের জ্বালানির বাজার এবং পণ্য সরবরাহ ব্যবস্থা অস্থিতিশীল হয়ে উঠেছে।

অন্যদিকে ক্রেমলিন বলছে, মি. সুনাকের প্রধানমন্ত্রিত্বের সময় ব্রিটেনের সাথে রাশিয়ার সম্পর্ক উন্নয়নের কোন সম্ভাবনা নেই।

তবে চীন বলেছে ব্রিটেনের সাথে সম্পর্ক ভালো হওয়া সম্ভব বলে তারা আশা করে – যদিও এর আগে চীনকে মি. সুনাক ব্রিটেনের নিরাপত্তার জন্য এক নম্বর হুমকি বলে বর্ণনা করেছিলেন।

– বিবিসি বাংলা