শ্রীলঙ্কায় ‘‌নজরদারি’‌ জাহাজ পাঠানোর পর পাকিস্তানে সেনা পাঠাচ্ছে বেজিং!‌

2

চীনের ‘‌নজরদারি’‌ জাহাজ শ্রীলঙ্কার হামবানটোটায় নোঙর করেছে।

যা নিয়ে বেশ চিন্তিত ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। সংশয় প্রকাশ করেছে আমেরিকাও। যদিও বেজিংয়ের তরফে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তাদের ‘উচ্চ প্রযুক্তির গবেষণা জাহাজ’ কোনও দেশের নিরাপত্তায় বিঘ্ন ঘটাবে না। এই পরিস্থিতিতে গোপন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, এবার নাকি পাকিস্তানে সেনা পাঠাচ্ছে চীন। 
এটা ঘটনা আর্থিক সাহায্যের নামে পাকিস্তানে একের পর এক প্রকল্প গড়ছে চীন। পাকিস্তানে ইতিমধ্যেই চীনের বিনিয়োগের পরিমাণ ছাড়িয়েছে ৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিসিয়েটিভ প্রকল্পে আফগানিস্তান–পাকিস্তান সীমান্তে রাস্তা বানাচ্ছে চীন। অর্থনৈতিক তো বটেই একপ্রকার বেজিংয়ের উপর সামরিক এবং কূটনৈতিকভাবে নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে ইসলামাবাদ। মধ্য এশিয়ায় প্রভাব বাড়াতে আফগানিস্তানের দিকেও হাত বাড়িয়েছে বেজিং। সূত্রের দাবি, আফগানিস্তান–পাকিস্তান সীমান্তের প্রকল্পের নিরাপত্তার স্বার্থে ইসলামাবাদের জমিতে আউটপোস্ট বানাতে চাইছে বেজিং। সেখানে সশস্ত্র লালফৌজ মোতায়েন করতে তৎপর হয়েছে জিনপিং প্রশাসন। পাক সরকারের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন ইসলামাবাদের চীনা রাষ্ট্রদূত। সূত্রের খবর, পাক ভূমিতে আউটপোস্ট তৈরি করে সশস্ত্র বাহিনী তৈরি করার বিষয়ে চাপ দিচ্ছে বেজিং।