দিনাজপুরে প্রেসক্লাবের দেওয়াল ভাঙ্গলেন ইউপি চেয়ারম্যান

দিনাজপুর প্রতিনিধি: কাউকে না জানিয়ে বা কোনো ধরনের নোটিশ ছাড়াই ভেঙে ফেলা হলো খানসামা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাকক্ষের দেয়াল। উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রেসক্লাবের দেয়াল ভাঙার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় উপজেলার সংবাদকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।রোববার সকালে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমেদ শাহ্‌ তাদের না জানিয়ে লোকজন দিয়ে প্রেস ক্লাবের সভাকক্ষের দেয়াল ভেঙে ফেলেন। এ ঘটনার প্রতিবাদ জানালে তাদের উল্টো হুমকি দেওয়া হয়। দেয়াল ঘেঁষে চেয়ারম্যান নতুন মার্কেট করবেন বলে জানা গেছে।

খানসামা উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নুরনবী ইসলাম বলেন, গত শুক্রবার রাতে ইউপি চেয়ারম্যান প্রেস ক্লাবের দেয়াল ঘেঁষে নতুন দেয়াল করবেন বলে জানান। এজন্য সভাকক্ষের টিন আরও উঁচু করতে বলেন। আমরা বিষয়টি নিয়ে প্রেসক্লাবে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগেই রোববার সকালে প্রেস ক্লাবের দেয়াল ও টাইলস ভেঙে ফেলে তার লোকজন। এটি কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। যদি প্রেসক্লাবের জায়গা তিনি পেয়ে থাকেন; তাহলে সুনির্দিষ্ট কিছু নিয়মের মধ্য দিয়ে যেতে হবে। এ ঘটনা পুরোটাই অনাকাঙ্ক্ষিত।

এ বিষয়ে প্রেসক্লাবের সভাপতি তাজ ফারাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অনুরোধ করা হয়েছে।
আঙ্গারপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমেদ শাহ্‌ বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সহকারী জিয়াকে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেই কাজ করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তিনি তা না করে দেয়াল ভেঙে ফেলেছেন। এ জন্য আমি দুঃখ প্রকাশ করছি।

তবে কেয়ারটেকার জিয়া জানান, চেয়ারম্যানের নির্দেশেই তিনি এ কাজ করছেন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সফিউল আযম চৌধুরী লায়ন বলেন, খবর পেয়ে কাজ বন্ধ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যানকে ভাঙা ঘর মেরামত করে দিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া ঝামেলা এড়াতে তহশিলদারকে পরিষদের সীমানা নির্ধারণ করতে বলা হয়েছে।