কাবুলে নারীদের বিরল বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করেছে তালেবান

কাবুলে নারীদের বিরল বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করেছে তালেবান

ভিনিউজ ডেস্ক : আফগানিস্তানের কট্টর ইসলামপন্থী তালেবানের ক্ষমতায় ফিরে আসার প্রথম বার্ষিকীর কয়েকদিন আগে তালেবান যোদ্ধারা শনিবার রাজধানীর এক বিরল সমাবেশে নারী বিক্ষোভকারীদের মারধর ও ফাঁকা গুলি চালিয়ে সহিংসভাবে ছত্রভঙ্গ করে।
গত বছরের ১৫ আগস্ট ক্ষমতা দখল করার পর তালেবানরা আফগানিস্তানে মার্কিন হস্তক্ষেপের দুই দশকে নারীদের অর্জিত ন্যূনতম প্রাপ্তিও কেড়ে নেয়। খবর এএফপি’র।
এএফপি’র একজন সংবাদদাতা জানান, প্রায় ৪০ জন নারী ‘রুটি, কাজ ও স্বাধীনতা’- স্লোগান দিয়ে কাবুলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ভবনের সামনে মিছিল করে। তালেবান যোদ্ধারা বন্দুকের ফাঁকা গুলি চালিয়ে পরে তাদের ছত্রভঙ্গ করে। আশেপাশের দোকানে আশ্রয় নেওয়া কিছু নারী বিক্ষোভকারীকে তালেবান যোদ্ধারা ধাওয়া করে এবং রাইফেলের বাট দিয়ে মারধর করে।
বিক্ষোভকারীদের বহন করা একটি ব্যানারে লেখা ছিল ‘১৫ আগস্ট একটি কালো দিন’। এসময় তারা কাজ করার অধিকার এবং রাজনৈতিক অংশগ্রহণের দাবি জানায়।
তারা বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছিল। এ সময় অনেকের মুখে নেকাব ছিল না।
ঝোলিয়া পার্সি নামে বিক্ষোভ সংগঠকদের একজন বলেন, দুভার্গ্যজনকভাবে এ সময় গোয়েন্দা সংস্থার তালেবানরা এসে ফাঁকা গুলি চালায়। তারা নারীদের ছত্রভঙ্গ করে, ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে এবং অনেক মেয়ের মোবাই ফোন বাজেয়াপ্ত করে।
তবে প্রতিবাদী মুনিসা মুবারিজ নারী অধিকারের জন্য লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন। তিনি বলেন, ‘তালেবানরা যদি এই কণ্ঠকে স্তব্ধ করতে চায়, তা সম্ভব নয়। আমরা আমাদের বাড়ি থেকে প্রতিবাদ করব।’
এএফপি’র একজন সংবাদদাতা জানান, মাসের মধ্যে প্রথম এই নারী সমাবেশ কভার করার সময় কিছু সাংবাদিক তালেবান যোদ্ধাদের হাতে মার খান।