ভারত-চীন সম্পর্ক স্বাভাবিক নয়: জয়শঙ্কর

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর শুক্রবার বলেছেন, সীমান্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে ভারত-চীন সম্পর্কও স্বাভাবিক হতে পারে না। তিনি আরো বলেছেন, চীন যদি সীমান্ত এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করে তাহলে তা সম্পর্কের ওপর আরো প্রভাব ফেলবে।

এস জয়শঙ্কর শুক্রবার বেঙ্গালুরুতে বলেন, ‘আমরা আমাদের এ অবস্থান বজায় রেখে এসেছি যে চীন যদি সীমান্ত এলাকায় শান্তি বিঘ্নিত করে তবে তা সম্পর্কের ওপর প্রভাব ফেলবে। আমাদের সম্পর্ক স্বাভাবিক নয়।

সীমান্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এটি স্বাভাবিক হতে পারে না। ’

জয়শঙ্কর আরও বলেন, বড় সমস্যা হল সীমান্ত পরিস্থিতি। ভারতীয় সামরিক বাহিনী তাদের অবস্থান ধরে রেখেছে।

জয়শঙ্কর বলেন, ‘আমরা নিয়ন্ত্রণরেখার (এলওসি) খুব কাছাকাছি যেসব স্থানে ছিলাম সেখান থেকে পিছিয়ে আসার ক্ষেত্রে যথেষ্ট অগ্রগতি করেছি। ’
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভের কথা বলার সময় ওপরের মন্তব্য করেন।  

তিনি আরো বলেছেন, ‘আমাদের আঞ্চলিক অখণ্ডতা এবং সার্বভৌমত্বের লঙ্ঘন হয়েছে। তৃতীয় দেশ অন্য দেশের দ্বারা দখল করা সার্বভৌম ভারতীয় ভূখণ্ডে কার্যকলাপ চালাচ্ছে। ’

এর আগে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছিল, সরকার চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (সিপিইসি) প্রকল্পের কাজে তৃতীয় দেশের অংশগ্রহণের খবর দেখেছে। কোনো পক্ষের দ্বারা এই ধরনের কার্যকলাপ সরাসরি ভারতের সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতার লঙ্ঘন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেছেন, ভারত দৃঢ় এবং অব্যাহতভাবে পাকিস্তানের অবৈধভাবে দখল করে রাখা ভারতীয় ভূখণ্ডে চলা তথাকথিত সিপিইসির প্রকল্পের বিরোধিতা করে। ’ 
সূত্র: এনডিটিভি