১৫ আগস্টের ব্যানারে বঙ্গবন্ধু ছাড়া অন্য ছবি ব্যবহার করা যাবে না

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে জতির পিতার ছবি ছাড়া ব্যানার ও পোস্টারে অন্য কোনো ছবি ব্যবহার করা যাবে না। যাদের এলইডি বোর্ড রয়েছে তারা ১৫ আগস্টের কর্মসূচি এলইডি বোর্ডের মাধ্যমে প্রচারের ব্যবস্থা করবে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দপ্তর ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

গত বুধবার জারি করা নির্দেশনা বাস্তবায়নে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর মহাপরিচালক, কারিগরি শিক্ষা অধিপ্তরের মহাপরিচালক, মাদরাসা শিক্ষা অধিপ্তরের মহাপরিচলকসহ সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

জাতীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামী ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যাথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা আওতাধীন দপ্তর, সংস্থা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পালন করবে। নির্দেশনায় বলা হয়, আগামী ১৫ আগস্ট (সোমবার) জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখতে হবে।

মন্ত্রণালয়ের দুই বিভাগ এবং আওতাধীন অধিপ্তর, সংস্থা, দপ্তরগুলোর পক্ষে রাজধানীর ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর রোডের বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে সকাল ৮টায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। এ সময় দুই বিভাগের যুগ্ম সচিব ও এর ঊর্ধ্বতন পর্যায়ের কর্মকর্তা, দপ্তর ও সংস্থা প্রধানসহ অনধিক পাঁচজন উপস্থিত থাকবেন।

সব দপ্তর ও সংস্থার কার্যালয়ে এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সংশ্লিষ্ট অফিসের দৃশ্যমান স্থানে জাতীয় শোক দিবসের ভাবগাম্ভীর্য অক্ষুণ্ন রেখে ব্যানার স্থাপন করতে হবে। পোস্টার ও ব্যানারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ছাড়া অন্য কোনো ছবি ব্যবহার করা যাবে না। মন্ত্রণালয় থেকে ব্যানারের নমুনা তৈরি করে সব দপ্তর ও সংস্থায় পাঠানো হবে। দপ্তর ও সংস্থা তা অনুসরণ করবে।