আর্থ সামাজিক উন্নয়নে পাকিস্তানের উচিত বাংলাদেশের কাছ থেকে শিক্ষা নেওয়া: রাজনাথ সিং

 

ভিনিউজ- আর্থ সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। সেইসঙ্গে পাকিস্তানের উচিত নিজেদের আত্মবিশ্লেষণ করা এবং বাংলাদেশের কাছ থেকে এ ব্যাপারে শিক্ষা নেওয়া বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।শুক্রবার এ মন্তব্য করেন ভারতের কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

এদিন, ভারতের নৌবাহিনীর জন্য কলকাতার গার্ডেন রিচ শিপবিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ার্স লিমিটেড (GRSE) নির্মিত অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজ ‘দুনাগিরি’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন রাজনাথ সিং।
এ সময় রাজনাথ সিং বলেন, ‘যেভাবে বাংলাদেশ উন্নতির দিকে অগ্রসর হয়েছে, তাতে প্রতিবেশী দেশ হিসেবে ভারত আনন্দিত ও খুশি। ধর্মীয় উন্মাদ, কট্টরপন্থী, সংকীর্ণতা পিছনে ফেলে আধুনিকীকরণ, সংযম, ধর্মনিরপেক্ষতা, নারী ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আর্থ সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা বিশ্বের বহু দেশের কাছে আদর্শ হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় ভারতের প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তানের প্রসঙ্গটিও উত্থাপন করেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী। নাম উচ্চারণ না করে তিনি বলেন, ‘…অপরদিকে আমাদেরই আরেকটি প্রতিবেশী রাষ্ট্র আছে যে, ধর্মান্ধতা, কট্টরপন্থী, সংকীর্ণতার কারণে নিজেরাই ডুবে আছে। ওরা নিজেরাই দারিদ্রতা ও সন্ত্রাসবাদী কর্মকাণ্ডে জর্জরিত আছে এবং ভারতকেও সমস্যা ফেলছে। বাংলাদেশের থেকে তাদের (পাকিস্তান) অনেক কিছু শেখার আছে এবং তাদের (পাকিস্তান) নিজেদের আত্মবিশ্লেষণ করা উচিত।’

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যেভাবে উন্নতি করে চলেছে, তাতে এটা পরিষ্কার যে, আগামীতে এক অন্য উচ্চতায় পৌঁছাতে সফল হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বাংলাদেশের পাশে থাকার বার্তা দিয়ে রাজনাথ সিং বলেন, ‘স্বাস্থ্য, শিক্ষা, অর্থনীতি, যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং নিরাপত্তা বিষয়ে ভারত সর্বদা বাংলাদেশের পাশেই আছে, আগামীতেও থাকবে।’

তার অভিমত, ‘ভারত উত্তরোত্তর যে শক্তি বাড়াচ্ছে তা শুধু নিজেদের জন্য নয়, বন্ধু রাষ্ট্রদের জন্যও। আমার বিশ্বাস এর ফলে আমাদের সম্মিলিত শক্তি আরো বৃদ্ধি পাবে।’

এদিন, রাজনাথ সিং ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য নির্মিত অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজ ‘আইএনএস দুনাগিরি’ উদ্বোধন করেন।