৭২ ঘন্টার মধ্যে চিনা দূতাবাস খালি করার নির্দেশ দিল আমেরিকা

Social Share

ওয়াশিংটন: আমেরিকা বরাবরই করোনাকে ‘চিনা ভাইরাস’ বলে অভিযোগ করে এসেছে। যা নিয়ে আমেরিকা ও চিনের মধ্যে টানাপোড়ন চলছে। এবার আমেরিকার টেক্সাসের হিউস্টন শহরের চিনা দূতাবাসটি শুক্রবারের মধ্যে বন্ধের জন্য চিনকে নির্দেশ দিল আমেরিকা।

মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, চিনকে হিউস্টনের দূতাবাস বন্ধ করতে বলা হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপাত্র মর্গ্যান ওর্তাগ্যাস জানান, আমেরিকার বৌদ্ধিক সম্পত্তি (ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি) এবং গোপন তথ্য সুরক্ষিত রাখতেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

মর্গ্যান ওর্তাগ্যাসের অভিযোগ, চিন আমেরিকার সার্বভৌমত্ব ভঙ্গ করেছে। তা কখনই মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। তিনি বলেন, ভিয়েনা চুক্তিতেই স্থির হয়েছিল, আমন্ত্রক দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে মাথা গলানো যাবে না।

উল্লেখ্য, ওয়াশিংটন ডিসির দূতাবাস ছাড়াও, আমেরিকায় আরও ৫টি চিনা দূতাবাস রয়েছে। তার মধ্যে হিউস্টনের দূতাবাসটিই বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হল। আমেরিকার এই নির্দেশের পর চিনের আধিকারিকরা গোপনীয় কাগজপত্র পুড়িয়ে দেওয়ার সময় আগুন লেগে যায়। তবুও দূতাবাসে দমকলকর্মীদের ঢুকতে দেয়নি চিনা আধিকারিকরা।

এদিকে, এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে চিন। তাদের মতে, এই সিদ্ধান্ত অযৌক্তিক ও আপত্তিকর। এর ফলে দু’দেশের সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে। সিদ্ধান্ত না বদলালে তারাও পাল্টা ব্যবস্থা নেবে।