৬ মাস বয়সী ছেলের হয়ে যা বললেন শ্রেয়া ঘোষাল

111
৬ মাস
Social Share

বলিউডের জনপ্রিয় প্লেব্যাক গায়িকা শ্রেয়া ঘোষাল। গত ২২ মে পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন তিনি। সন্তান জন্মের পর এই ৬ মাস একেবারে নিজের মতো করে আগলে রেখেছেন ছেলেকে। অবশেষে ছেলের পূর্ণাঙ্গ ছবি সামনে আনলেন শ্রেয়া।

সোমবার (২২ নভেম্বর) সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেলের সঙ্গে তোলা কয়েকটি ছবি প্রকাশ করেছেন এই গায়িকা। সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন ছেলের হয়ে বলা কিছু মিষ্টি কথা। যেন ছোট্ট শিশুটিই সবাইকে বলছে তার কথাগুলো।

ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, ‘হাই এভরিবডি। আমি দেবযান এবং আজ আমি ৬ মাস পূর্ণ করলাম। বর্তমানে আমি আমার চারপাশের পৃথিবী অন্বেষণে, আমার প্রিয় গান শুনতে, সমস্ত ধরণের ছবির বই পড়তে, বোকা জোকসে উচ্চস্বরে হাসতে এবং আমার মায়ের সঙ্গে গভীর কথোপকথনে ব্যস্ত আছি। মা-ই একমাত্র আমাকে বোঝে। তোমাদের সকলকে ধন্যবাদ আমাকে ভালোবাসা আর আশীর্বাদ পাঠানোর জন্য।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় শ্রেয়ার এই পোস্ট দেখে খুশিতে আত্মহারা তার ভক্তরা। হাজার হাজার মন্তব্যে ভরে গেছে কমেন্ট বক্স।

২০১৫ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি ছোটবেলার বন্ধু শিলাদিত্যের সঙ্গে ঘরোয়া পরিসরে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারেন শ্রেয়া ঘোষাল। বিয়ের ৬ বছর পর তাদের ঘরে নতুন অতিথি এসেছে।

সন্তান জন্মের পর শ্রেয়া জানিয়েছিলেন, ‘ভগবান আমাদের সবচেয়ে মূল্যবান উপহার দিয়েছে…একটি ফুটফুটে ছেলে! এটা একদম আলাদা অনুভূতি। যা আগে কখনও হয়নি। শিলাদিত্য, আমি ও আমাদের পরিবার খুব খুশি। সবাইকে ধন্যবাদ আমাদের এই ছোট্ট সদস্যকে আশীর্বাদ ও ভালোবাসা দেওয়ার জন্য।’

এর আগে ৪ মার্চ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বেবি বাম্পের একটি ছবি পোস্ট করে শ্রেয়া জানিয়েছিলেন, ‘আমাদের সন্তান শ্রেয়াদিত্য আসছে। আপনাদের সঙ্গে খবরটি ভাগাভাগি করতে পেরে শিলাদিত্য ও আমি খুবই শিহরিত। জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছি। আপনাদের ভালোবাসা ও আশীর্বাদ প্রয়োজন।’

সন্তান জন্মের পর শ্রেয়া জানিয়েছিলেন, ‘ভগবান আমাদের সবচেয়ে মূল্যবান উপহার দিয়েছে…একটি ফুটফুটে ছেলে! এটা একদম আলাদা অনুভূতি। যা আগে কখনও হয়নি। শিলাদিত্য, আমি ও আমাদের পরিবার খুব খুশি। সবাইকে ধন্যবাদ আমাদের এই ছোট্ট সদস্যকে আশীর্বাদ ও ভালোবাসা দেওয়ার জন্য।’

এর আগে ৪ মার্চ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বেবি বাম্পের একটি ছবি পোস্ট করে শ্রেয়া জানিয়েছিলেন, ‘আমাদের সন্তান শ্রেয়াদিত্য আসছে। আপনাদের সঙ্গে খবরটি ভাগাভাগি করতে পেরে শিলাদিত্য ও আমি খুবই শিহরিত। জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছি। আপনাদের ভালোবাসা ও আশীর্বাদ প্রয়োজন।’