৫ জি ভারতে চালু হতে দেবেন না, আদালতে জুহি চাওয়ালা

41
Social Share

টেলিকম সংস্থাগুলো সারা বিশ্বজুড়, সরকারের সাহায্য নিয়ে গোটা বিশ্বে ৫জি পরিষেবা চালু করার কথা ভাবছে। এমনকী, বাজারে বেশ কিছু মোবাইল প্রস্তুতকারক সংস্থা নিয়ে এসেছে ৫জি মোবাইলও। নতুন এই পরিষেবা চালু করার কথা ভাবছে ভারতও। ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া’য় প্রযুক্তিকে আরও উন্নত করতে ৫জি চালু করার কথা ভেবেছে নরেন্দ্র মোদির সরকার। যদিও এনেকেই মনে করছেন এটি চালু হলে বর্তমান ও ভবিষ্যত প্রজন্মের ওপর শারীরিকভাবে খারাপ প্রভাব পড়তে পারে।

এবার ৫জি পরিষেবা চালুর বিরোধে এগিয়ে এলেন অভিনেত্রী জুহি চাওয়ালা। পরিবেশ নিয়ে বরাবরই বেশ সচেতন জুহি। কাজ করেন বিভিন্ন এনজিও-র সঙ্গেও। সম্প্রতি ৫জি-র বিরুদ্ধে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন অভিনেত্রী।

সংবাদমাধ্যমকে জুহি জানিয়েছেন, ‘আমরা দেশের প্রযুক্তগত উন্নতির বিপক্ষে নই। আমরা প্রায় সকলেই বাজারে নতুন আসা ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু আরএফ রেডিয়েশন নিয়ে আমাদের সকলের মধ্যেই একটা দ্বিধা কাজ করে। বেশ কিছু সমীক্ষা ও পরীক্ষানীরিক্ষার মাধ্যমে এর মধ্যেই আমরা জানতে পেরেছি মানুষ ও পশু-পাখিদের শরীরের জন্য এটা কতটা ক্ষতিকর।’

যদিও টেলিকম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এর মধ্যেই বিবৃতি প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, সেয়েন্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ বোর্ড (SERB) করা কোনও পরীক্ষাতেই ২জি, ৩জি, ৪জি, ৫জি নেটওয়ার্কের মানুষ ও জীবজন্তুর শরীরে কোনও ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলার বিষয়টি সামনে আসেনি। সেলুলার অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়ার ডিরেক্টর জেনারেল এস পি কোচার জানিয়েছেন, বিশ্বের বহু দেশ ৫ জি নেটওয়ার্কের সুবিধা পাচ্ছে।

এই পরিষেবা কোনওরকম সমস্যা ছাড়াই সংশ্লিষ্ট দেশের সাধারণ মানুষ ব্যবহার করছেন। বিশেষত বর্তমান সময়ে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলেই তাঁদের মত। কেননা এখন ওয়ার্ক ফ্রম হোম, অনলাইন ক্লাস থেকে শুরু করে চিকিৎসা পরিষেবাও মিলছে টেলি যোগাযোগ ব্যবস্থার মাধ্যমে অনলাইনেই। হিন্দুস্তান টাইম