২ নভেম্বর শুরু জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা, এবার ছাত্রের চেয়ে ২ লাখ বেশি ছাত্রী

শুরু হচ্ছে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা। মোট ছাত্রের চেয়ে এবার ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় দুই লাখ বেশি হচ্ছে।

আগামী ২ নভেম্বর শনিবার থেকে শুরু হচ্ছে পরীক্ষাটি। এ বছর মোট পরীক্ষার্থী ২৬ লাখ ৬১ হাজার ৬৮২ জন। এর মধ্যে ছাত্র ১২ লাখ ২১ হাজার ৬৯৫ জন এবং ছাত্রী ১৪ লাখ ৩৯ হাজার ৯৮৭ জন। ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা দুই লাখ ১৮ হাজার ২৯২ জন বেশি।

গতকাল মঙ্গলবার সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এসব তথ্য জানান। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক প্রমুখ।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আগামী বছরের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা থেকে জিপিএ ৫-এর পরিবর্তে জিপিএ ৪-এ ফল প্রকাশের ব্যাপারে মন্ত্রণালয় কাজ করছে। তবে চলতি বছর থেকে জিপিএ ৪ গ্রেডিং কার্যকর হচ্ছে না।

অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘অনৈতিক কোনো কাজের পেছনে ছুটবেন না। নিজের সন্তানের ভবিষ্যৎ এবং জাতির ভবিষ্যৎ নষ্ট করবেন না।’ তিনি আরো বলেন, ‘যদি কেউ অনৈতিক কোনো কাজে জড়িত হয় অথবা ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে গুজব রটায়, তাহলে আমাদের আইন-শৃঙ্খলা এবং গোয়েন্দা বাহিনী অত্যন্ত তৎপর রয়েছে। যারা এ ধরনের অনৈতিক কাজে জড়িত থাকবে, তাদের কঠিন শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চলতি বছর মোট কেন্দ্রের সংখ্যা দুই হাজার ৯৮২। মোট ২৯ হাজার ২৬২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এই পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। এ বছর বিদেশে মোট ৯টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। কেন্দ্রগুলো হলো—জেদ্দা, রিয়াদ, মদিনা, ত্রিপোলি, দোহা, সাহাম, বাহরাইন, আবুধাবি ও দুবাই। বিদেশের কেন্দ্রগুলোতে মোট পরীক্ষার্থী ৪৫৪ জন।

এবার পরীক্ষার্থীদের সাতটি বিষয়ে ৬৫০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হবে। ইংরেজি ছাড়া সব বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা দিতে হবে। শারীরিক শিক্ষা ও স্বাস্থ্য, কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা, চারু ও কারুকলা, কৃষি শিক্ষা, গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, আরবি, সংস্কৃত, পালি বিষয়গুলো এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যায়নের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের অবশ্যই পরীক্ষা কক্ষে প্রবেশ করতে হবে। প্রতিবন্ধীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট ও  অটিস্টিক শিশুদের জন্য অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় দেওয়া হবে।

জেএসসি পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১১ নভেম্বর এবং জেডিসি পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১৩ নভেম্বর। এই পরীক্ষা উপলক্ষে গত ২৫ অক্টোবর থেকে আগামী ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশনা এরই মধ্যে দেওয়া হয়েছে।