২৪ ঘণ্টায় ঘটনাবহুল পাকিস্তান

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান
Social Share
২৪ ঘণ্টায় পাকিস্তানে বিভিন্ন চমকপ্রদ ঘটনা ঘটেছে। বিভিন্ন ইস্যুতে দেশটি আবারও আলোচনার কেন্দ্রে চলে এসেছে। এমন কিছু ঘটনা দেখে নেওয়া যাক।
১. পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের প্রধান সচিব আজম খানকে থাপ্পড় দিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি।
২. পাকিস্তানের সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া ও সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টার-সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের (আইএসআই) প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফয়েজ হামিদের সঙ্গে দেখা করেননি সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান।
৩. পাকিস্তানের মানবাধিকার বিষয়ক মন্ত্রী ড. শিরিন মাজারি বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের বৈদেশিক নীতি ‘মহা ব্যর্থতায়’ পর্যবেসিত হয়েছে।
৪. পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি সৌদির প্রতিদ্বন্দ্বী কাতারের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন এমন সময়ে যখন দেশটির সেনাপ্রধান সৌদি আরবে সফর করছেন।
৫. সৌদি আরব কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের সঙ্গে ভবিষ্যতে কোনো বৈঠকে বসতে অস্বীকার করেছে।
৬. সৌদি আরব বলেছে, পাকিস্তান ও তুরস্কের মধ্যে কোনো ধরনের সহযোগিতা তারা সহ্য করবেন না। এমন কি তারা পাকিস্তানের টেলিভিশনে তুর্কি টেলিভিশন সিরিজ এরতুগ্রুল প্রদর্শন হোক সেটি চায় না।
৭. পাকিস্তান, তুরস্ক, মালয়েশিয়া ও ইরানের মধ্যে ‘ব্লক’ তৈরির যেকোনো আলোচনার অবশ্যই প্রকাশ্য নিন্দা করা উচিত বলে জানিয়েছে সৌদি আরব।
৮. পাকিস্তানকে সৌদি আরব কিছু শর্ত দিয়েছে, যদি সেগুলো পূরণ করতে ব্যর্থ হয় তারা তাহলে…
. পাকিস্তানের গদর বন্দরে ২০ বিলিয়ন ডলারের সৌদি বিনিয়োগ স্থগিত করবে।
. একই সঙ্গে পূর্ববর্তী সব সাহায্যের প্রতিশ্রুতি বাতিল করে দেবে।
. তেলের দাম দিতে দেরি হলে সরবরাহ বন্ধ করা হবে।
. ২০৩০ ভিশনের আওতায় হাজার হাজার জনশক্তি সোর্সিং ভারতের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হবে।
. পাকিস্তানের মাদ্রাসাগুলোর অর্থায়ন বাতিল করা হবে।
. প্রয়োজন নেই এমন পাকিস্তানী শ্রমিকদের ফেরত পাঠানো হবে।
. সৌদি আরব কর্তৃক পাকিস্তানের দেওয়া ঋণ দ্রুত ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারটি কার্যকর করা হবে।
. সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে ইসরাইলের শান্তি চুক্তির বিষয়ে সম্পূর্ণ নীরব থাকতে হবে।