২৩ জানুয়ারি ‘দেশপ্রেম দিবস’ হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ভারতের ফরওয়ার্ড ব্লক

61
Social Share

নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকীর আগে গত মঙ্গলবার ২৩ জানুয়ারিকে পরাক্রম দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। পাশাপাশি, ঐতিহ্যবাহী হাওড়া-কালকা মেলের নাম বদলে ‘নেতাজি এক্সপ্রেস’ করে দেওয়া হয়েছে। তবে নেতাজির জন্মদিনকে দেশপ্রেম দিবস ঘোষণার দাবি জানিয়েছে ফরওয়ার্ড ব্লক।

ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা নরেন চট্টোপাধ্যায় বলেন, দেশপ্রেম দিবস হিসেবে মানুষ এই দিনটাকে চায়। নেতাজির থেকে বড় মাপের দেশপ্রেমিক ভারতে জন্মায়নি। মহাত্মা গাঁন্ধী তাঁকে বলেছিলেন ‘Patriot of Patriots’, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন, ‘দেশনায়ক’। তাই অবিলম্বে নেতাজির জন্মদিনকে দেশপ্রেম দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হোক।

নেতাজির প্রপৌত্র চন্দ্র কুমার বসু বলেন, মহাত্মা গান্ধী নেতাজিকে ‘Patriot of Patriots’ বলে ঘোষণা করেছিলেন৷ তাই নেতাজির জন্মদিনকে জাতীয় ‘দেশপ্রেম দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানাই৷

পাল্টা বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার বলেছেন, দেশপ্রেম দিবস পরাক্রম দিবসের নামের ফারাক কি? এঁরা কি বোঝাতে চাইছেন? নেতাজির আদর্শ ফরওয়ার্ড ব্লককে ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছে। তাঁর অভিযোগ, নেতাজির আদর্শে কোনও কাজ করেনি ফরওয়ার্ড ব্লক।

নেতাজি পরিবারের সদস্য সুগত বসু বলেছেন, দেশবাসী নেতাজিকে কেন এত ভালোবাসেন, সেটা মনে রাখতে হবে। নতুন প্রজন্মের কাছে নেতাজির আদর্শ তুলে ধরতে হবে। নেতাজি হিন্দু-মুসলিমদের সমান অধিকার দিয়েছিলেন, শুধু যোদ্ধা ছিলেন না তিনি। সেটা যেন মনে রাখতে হবে।

বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, নেতাজির জন্মদিনকে শুধু জাতীয় ছুটি নয়। দিনটিকে জাতীয় ‘দেশপ্রেম দিবস’ হিসেবে ঘোষণা ও পালন করা হোক।