ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শাসন ২০২০ সালে যেমন ছিল

5
Social Share

ডেস্ক রিপোর্ট: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২০২০ সাল জুড়েই ব্যস্ত ছিলেন। ভারত এবং এর বাইরে গিয়ে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করেছেন তিনি।

২০২০ সালের শুরুতেই বিভিন্ন বিশ্ব নেতাদের ফোন করে শুভেচ্ছা জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। জানুয়ারির প্রথম দুই সপ্তাহে বিশ্বের ১১টি দেশের প্রধানের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন তিনি । এছাড়া ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে উপস্থিত ছিলেন ব্রাজিলের প্রধানমন্ত্রী জাইর বলসোনারো । এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও ভারত সফর করেন। এরপরই বিশ্বব্যাপী হানা দেয় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস।

করোনা ভাইরাসে বিশ্ব যখন জর্জরিত সেই সময় ভারতের ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলোকে করোনার বিরুদ্ধে প্রতিষেধক বানানোর আহ্বান জানান নরেন্দ্র মোদি। ঐ সময় ভারত ৫৬০ মিলিয়ন হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন এবং ৫৩.১৩ মেট্রিক টন হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন তৈরির উপাদান বিভিন্ন দেশে পাঠায় ভারত। এছাড়াও ভারত ৯৬টি দেশে বাণিজ্যিকভাবে ১৫৪ মিলিয়ন প্যারাসিটামল রফতানি করে।

২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন যে, তিনি চান না যে ভারতের কোনো প্রজেক্ট ভিভিআইপি দ্বারা উদ্বোধন হওয়ার জন্য ঝুলে থাকুক। ঐ সময়ে তিনি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রজেক্টের উদ্বোধন শুরু করেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতারাও এই ভিডিও কনফারেন্সে মোদির সঙ্গে অংশ নেন।

২০২০ সালের করোনা মহামারির আগেও নরেন্দ্র মোদি নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মার সঙ্গে ভার্চুয়াল কনফারেন্সে বৈঠক করেন। বৈশ্বিক করোনা মহামারি পরিস্থিতির মধ্যে চলতি বছরের ১৫ মার্চ সার্ক নেতারা ভার্চুয়াল সম্মেলনে মিলিত হন। এই সম্মেলনের পেছনের কারিগরদের পরামর্শেই চলতি বছর ভার্চুয়ালি জি-২০ সম্মেলনের আয়োজন করে সৌদি আরব। এছাড়া ন্যাম সম্মেলন,এসসিও, আসিয়ান, ব্রিক্স সম্মেলনও ভার্চুয়ালি হয়েছে।

করোনা মহামারি পরিস্থিতির মধ্যে প্রধানমন্ত্রী মোদি ১৭টি ভার্চুয়াল সম্মেলন করেছেন। এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, শ্রীলংকা, বাংলাদেশ, ইতালি, লুক্সেমবার্গ, উজবেজকিস্তানের সরকার প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেন মোদি।

ভার্চুয়াল বৈঠক ছাড়াও বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে ফোনেও যোগাযোগ রক্ষা করেছেন নরেন্দ্র মোদি। বিশ্বের প্রায় ৯০ টি দেশের সঙ্গে ফোনে বৈঠক করেছেন তিনি।