১৩০ কোটি ভারতবাসী বীর জওয়ানদের পাশে আছে, একসুরে বার্তা দেবেন সাংসদরা: মোদী

Social Share

নয়াদিল্লি: করোনার পরিস্থিতির মধ্যেই আজ, সোমবার থেকে শুরু হল সংসদের বাদল অধিবেশন। অধিবেশন শুরু হওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, এই সংসদের একটি বিশেষ দায়িত্ব আছে। আমাদের বীর সেনা জওয়ানরা দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় সাহসিকতার পরিচয় দিচ্ছেন। শীঘ্রই বরফ পড়তে শুরু করবে। দেশমাতৃকাকে রক্ষার জন্য তাঁরা সেখানে আছেন। সব সাংসদ জওয়ানদের উদ্দেশ্যে বার্তা দেবেন, সারা দেশ তাঁদের সঙ্গে আছে। এক সংকল্প, এক সুর, একই ভাবনার মাধ্যমে বার্তা দেবেন, তাঁরা বীর জওয়ানদের পাশে আছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বীর সেনা জওয়ানরা অসীম সাহসী, নিষ্ঠাবান, ও দেশের জন্য আত্মত্যাগে প্রস্তুত। সীমান্তে তাঁরা একেবারে মজবুত দেওয়ালের মতো দাঁড়িয়ে রয়েছে। পাশাপাশি, সাংসদদের প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা আবহেও বাদল অধিবেশনে অংশগ্রহণ করে নিজেদের দায়িত্ব পালন করছেন সাংসদরা।

নমোর কথায়, আমি সাংসদদের অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। এবার দিনের ভিন্ন সময় লোকসভা ও রাজ্যসভার অধিবেশন হবে। শনিবার এবং রবিবারও তা চলবে। সব সাংসদরা এই প্রস্তাব সাদরে মেনে নিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সময় স্বল্পতার কারণে অধিবেশন থেকে জিরো আওয়ার এবং প্রশ্নোত্তর পর্ব বাদ পড়েছে। যার ফলে সরব হয়েছেন বিরোধীরা। তবে মোদীর আশা, অধিবেশনে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলি উঠে আসবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হবে। লোকসভায় বিস্তারিত ও ব্যাপকভাবে আলোচনার সেই মহান ঐতিহ্য বজায় রাখব এবং সব সাংসদ তাতে যোগদান করবেন।