হেমা মালিনীর গালের মতো সুন্দর রাস্তা হবে ভারতে!

ভারতের মধ্যপ্রদেশের রাস্তাঘাটের বেহাল দশা। এ কারণে প্রবল ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ট্রাক চালক ও মালিকরা। ভাঙাচোরা রাস্তার কারণে একাধিক সড়ক দুর্ঘটনা নিত্যদিনের ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ঘটনার জেরে ক্ষুব্ধ রাজ্যের সাধারণ মানুষও। এ পরিস্থিতিতে মুখ খুললেন রাজ্যের আইনমন্ত্রী পি সি শর্মা। বুধবার এই মন্ত্রী বলেছেন, ‘খুব শীঘ্রই শহরের খানাখন্দে ভর্তি রাস্তাগুলি অভিনেত্রী তথা রাজনীতিবিদ হেমা মালিনীর ‘গাল’-এর মতো সুন্দর করা তোলা হবে।’ ভোপালে এক সভায় তিনি এ কথা বলেছেন।

আইনমন্ত্রী পি সি শর্মা ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট নিয়ে বিজেপিকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি মন্ত্রী। বছর খানেক আগে মধ্যপ্রদেশে ক্ষমতার পালাবদল হয়েছে। তাই ভাঙাচোরা রাস্তাঘাটের দায় বিজেপির ঘাড়ে চাপানোর চেষ্টা করেন মন্ত্রী শর্মা।

তিনি বলেন, মানুষের বসন্ত হলে যেমন হয়, রাস্তাঘাটের অবস্থাও তেমন হয়ে পড়েছে। বিজেপির সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের গালের মতো হয়ে পড়েছে পথঘাটের অবস্থা। তবে এটা বেশিদিন থাকবে না। মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের নির্দেশ মেনে এবং পূর্তমন্ত্রী সজ্জন ভার্মার নজরদারিতে ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যেই শহরের ভাঙাচোরা রাস্তাঘাট অভিনেত্রী তথা রাজনীতিবিদ হেমা মালিনীর ‘গাল’-এর মতো সুন্দর করা তোলা হবে। পূর্ববর্তী বিজেপি সরকার রাস্তাঘাটের উন্নয়নে কোনও নজর দেয়নি।

অন্যদিকে পূর্তমন্ত্রী ভার্মা বলেন, প্রবল বর্ষা ও বন্যার কারণে রাস্তাঘাটের এই হাল হয়েছে। ভবিষ্যতে প্রবল বৃষ্টি ও বন্যা হলেও রাস্তাঘাট যাতে ঠিক থাকে তেমনভাবেই এবার রাস্তাগুলি তৈরি করা হবে। আমাদের লক্ষ্য হল, রাজ্যের রাস্তাঘাটগুলি নিউ ইয়র্ক বা ওয়াশিংটনের রাস্তার মতো করে গড়ে তোলা।

দুই  বছর আগে তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা শিবরাজ সিং বলেছিলেন, মধ্যপ্রদেশের রাস্তাঘাট ওয়াশিংটনের থেকেও ভাল। পূর্তমন্ত্রী এদিন অভিযোগ করেন, রাজ্যের বিভিন্ন রাস্তাঘাট, সেতু সারাতে আমরা কেন্দ্রের কাছ থেকে ১,১৮৮ কোটি টাকা চেয়েছি। কিন্তু কেন্দ্রের তরফে এখনও এক টাকাও দেওয়া হয়নি। কংগ্রেস শাসিত মধ্যপ্রদেশের সঙ্গে চরম বৈষম্যমূলক আচরণ করছে নরেন্দ্র মোদি সরকার।