‘স্বাধীনতাবিরোধী ও বিএনপি-জামাত পরিকল্পিত ভাবে দেশে অস্থিতিশীলতা তৈরি করার জন্য সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে’

61
Social Share

স্বাধীনতাবিরোধী ও ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের বেনিফিশিয়ারি বিএনপি- জামাতের নেতাকর্মীরা সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য সুপরিকল্পিতভাবে কুমিল্লা, রংপুর সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস সৃষ্টি করছে।
আজ শনিবার ২৩ অক্টোবর বিকাল ৩ টায় কদমতলী থানা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে ডঃ মোঃ আওলাদ হোসেন এর নেতৃত্বে জুড়াইন রেলগেট সংলগ্ন খোলা চত্বর থেকে দোলাইরপাড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য (প্রস্তাবিত) গোল চত্বর পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিছিল শেষে কদমতলী থানা আওয়ামীলীগ এর সভাপতি মোহাম্মদ নাছিম মিয়ার সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে ডঃ মোঃ আওলাদ হোসেন বলেন, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের সম্প্রীতির বাংলাদেশে কুমিল্লায় মন্দিরে উদ্দেশ্যমুলকভাবে যে ঘটনা ঘটানো হয়েছে তা নিন্দনীয়।
স্বাধীনতা বিরোধী বিএনপি জামাতের সন্ত্রাসীরা পরিকল্পিত ভাবেই দেশটাকে একটা অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার জন্যই এই কাজটি করেছে। তিনি
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের সকল নেতাকর্মী ও স্বাধীনতার স্বপক্ষের সকল শক্তিকে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান। বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা পরিষদ সদস্য, মোঃ আলমগীর হোসেন, ঢাকা মহানগর যুবলীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ আহমেদ, শ্যামপুর থানা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শরীফ মোহাম্মদ শাহজাহান, হাজী মহব্বত হোসেন, কদমতলী থানা মহিলা শ্রমিক লীগের সভাপতি সাজেদা বেগম, শ্যামপুর থানা শ্রমিক লীগ সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বাবু, কদমতলী থানা শ্রমিক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, শ্যামপুর থানা মৎস্য লীগ সভাপতি উজহ, সাধারণ সম্পাদক আরিফ হোসেন, কদমতলী থানা আওয়ামীলীগ সদস্য শহীদ মাহমুদ হেমী, রোখসানা বেগম পারুল, কাজী জাহিদ, আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মামুন, আরিফ হোসেন, মনিরুজ্জামান মনিরসহ আওয়ামী লীগ ও অংগ-সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।