‘সৌরভ আসছে শুনে অনুষ্ঠানে আসার লোভ সামলাতে পারিনি’, জল্পনা উসকে মন্তব্য অমিত শাহের

12
Social Share

নয়াদিল্লি: পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী মুখ কে? এই প্রশ্ন উঠলেই যে কয়টা নাম শোনা যায়, তার মধ্যে সবথেকে বেশি আলোচিত সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। রবিবার বিকালে রাজভবনে গিয়ে সৌরভের সাক্ষাতের পড়ে জল্পনা ছড়ায়। সেই জল্পনা আরও তীব্র হয় সোমবার অরুণ জেটলির মূর্তি উন্মোচনের মঞ্চে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় থাকায়।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অমিত শাহ-পুত্র তথা বিসিসিআই সচিব জয় শাহ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর, ক্রিকেটার শিখর ধাওয়ান, বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর–সহ আরও অনেকেই। তবে এদিনের অনুষ্ঠানের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু সেই দু’জনই – দাদা এবং অমিত শাহ।

যদিও রাজনীতির প্রসঙ্গ এড়িয়ে সৌরভ বলেন, অরুণ জেটলি বরাবরই ক্রিকেট প্রেমী মানুষ ছিলেন। যে কোনও প্রাক্তন ক্রিকেটারই আমার সঙ্গে একমত হবেন। ক্রিকেটে একজনের প্রশাসকের ভূমিকা উড়িয়ে দেওয়া যায় না, কারণ তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমি নিজেও সেটা বুঝেছি।

সৌরভের সাথে সুর মিলিয়ে অমিত শাহ বলেন, ক্রিকেট খেলার সঙ্গে দু’‌ধরনের মানুষ যুক্ত থাকেন। একদল ক্রিকেট খেলেন আর একদল ক্রিকেট খেলার উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করেন। তাঁদের অনেক অবদান থাকে। এজন্যই আমরা অরুণ জেটলি জির এই মূর্তির উন্মোচন করছি।

এরপরেই অমিত শাহ বলেন, এদিনের অনুষ্ঠানে সৌরভের আসার কথা ছিল। গম্ভীরও আসছেন। শুনে আমি নিজেকে সামলাতে পারলাম না। আমার লোভ হল যে অরুণজির মূর্তি উন্মোচনের অনুষ্ঠানে আসার। তাই আমি সঙ্গে সঙ্গে হ্যাঁ বলে দিয়েছিলাম।