সেদিনের বৃষ্টি আজও ঝরে : মুক্তা দাশ

মুক্তা দাশ
Social Share
সেদিনের বৃষ্টি আজও ঝরে
    ~মুক্তা দাশ ~
মেঘে ঢাকা জলকণা র ভারে
আকাশ বড্ড বেসামাল।
ঝরে পরে মাটির বুকে ;   মায়ায় জড়িয়ে
ভাসায় ফসলিয়া ক্ষেত    খরস্রোতা
করে নদীর বুক ।
আমি নির্বাক তাকিয়ে রই…
কদমের ঘ্রাণে নিজেরে হারাই
হারিয়ে যাই ঝুম বৃষ্টির
ঝুম-ঝুমা-ঝুম রাগসঙ্গীতে ।
সেই  কবে…
কাক ভেজা বৃষ্টিতে !     কদম গেঁথে দিয়েছিলে
লম্বা কালো চুলের  বিনুনির খাঁজে।
কাঠবাদাম গাছের সবুজ পাতার বিশাল
ছাতাটা, রক্ষা করতে পারেনি    আমাদের।
ধেয়ে আসা ঝড়ো বৃষ্টির হাত থেকে
তোমাকে   আর   আমাকে !
ভেজা শাড়িতে জুবুথুবু   আমি।
আর তুমি…
সেদিন তোমার চোখে মুখে আমি এক
নতুন তোমাকে দেখেছিলেম
অন্য এক পুরুষ !
অন্য তুমি      বড্ড বেশি ই
কাব্যিক   তুমি !
বছর ঘুরে  আষাঢ় আসে   আষাঢ় যায়
কদম ফোটে     নতুন সবুজ পাতার ফাঁকে
বৃষ্টি ঝরায় রাত্রিদিন ।
মেঘের মৌণ মিছিল হঠাৎই গর্জে উঠে
বজ্রপাতে !  তবু   বৃষ্টি ঝরে অঝোরে।
আমি ঠায় বসে থাকি…
মনের সমুদ্রের ঢেউ আছড়ে পড়ে
চোখে !  সম্বিত ফিরে পাই নোনা স্বাদে ,
সামলে উঠি    আঁচলের আড়ালে ।
মায়া ভরা নরম  কঁচি সুর     পিছু ডাকে
    মা…….মা গো…
          ও… মা ।।