সীমান্তে সেনা সরানোর বিষয়ে পারস্পরিক ঐক্যমতে আসল ভারত-চিন

Social Share

নয়াদিল্লি: গত ১৫ জুন লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ভারত ও চিনের সংঘর্ষের পরে দু’দেশের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে। উত্তেজনা প্রমশনে সোমবার আলোচনায় বসেছিল দু’দেশের সেনাবাহিনী। ১১ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠক ফলপ্রসূ হয়েছে বলে খবর। ভারতীয় সেনার দুই শীর্ষ আধিকারিক জানান, সেনা সরানোর বিষয়ে পারস্পরিক ঐক্যমতে পৌঁছাল ভারত ও চিন।

ভারতীয় সেনা বিবৃতি জারি করে বলেছে, সোমবার চিনের মলডোতে ভারত এবং চিনের মধ্যে কর্পস কম্যান্ডার পর্যায়ের বৈঠক আন্তরিক, ইতিবাচক ও গঠনমূলক হয়েছে। সেনা সরানোর বিষয়ে পারস্পরিক ঐক্যমতে এসেছে দু’দেশ। পূর্ব লাদাখের সব সংঘাতের এলাকা থেকে সেনা সরানো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। দু’পক্ষই তাঁদের সেনা সরিয়ে নেবে।

সোমবার সকাল সাড়ে ১১ টা নাগাদ শুরু হওয়া এই বৈঠকে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করেন লেহ’র ১৪ কর্পসের কম্যান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিং। চিনের তরফে বৈঠকে প্রতিনিধিত্ব দক্ষিণ শিনজিয়াং সামরিক প্রদেশের কম্যান্ডার মেজর জেনারেল লিন লিউ।

ভারতীয় প্রতিনিধি দল বৈঠকে দাবি জানায়, ফিঙ্গার অঞ্চল থেকে চিনা সেনা সরিয়ে নেওয়ার। প্যাংগং সো লেকের সেই কৌশলগত ক্ষেত্রের ক্লাস্টারে বাঙ্কার, পিলবক্স, নজরদারি পোস্ট তৈরি করেছিল চিনা সেনা। গালওয়ান সংঘর্ষের জায়গা থেকে চিনা সেনা সরিয়ে নেওয়া দাবি জানানো হয়। গুরুত্বপূর্ণ কৌশলগত এলাকাগুলিকে পুরনো অবস্থায় ফিরিয়ে আনার দাবি জানানো হয়। একইসঙ্গে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চিনা আগ্রাসন বন্ধের দাবি জানায় ভারতীয় সেনা।