সিলেটের এমসি কলেজে গৃহবধূ ধর্ষণের মামলার দ্রূত বিচার চায় মানুষ: হাইকোর্ট

26
Social Share

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণের মামলার সঙ্গে স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়ার মামলার বিচার একত্রে করার আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে মামলার বাদী, বাদীর আইনজীবী ও স্বাক্ষীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য সিলেটের পুলিশ কমিশনারকে বলা হয়েছে।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ আজ রবিবার এ আদেশ দেন। এছাড়া মামলাটির বিচারের জন্য ট্রাইব্যুনাল স্থানান্তরের আবেদন গ্রহণ করেনি হাইকোর্ট। ফলে বর্তমানে যে ট্রাইব্যুনালে মামলাটির বিচার চলছে সেখানে হবে।

হাইকোর্ট বলেছে, দেশের সব মানুষ চাচ্ছে দ্রূত এই মামলার বিচার শেষ হোক। নিশ্চিত হোক ন্যায় বিচার। কিন্তু আপনারা মামলার আদালত পরিবর্তনের আবেদন দিয়েছেন, এতে তো মামলার বিচার বিলম্বিত হবে।সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণের মামলার বিচারের আদালত পরিবর্তন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করে বাদী। একইসঙ্গে ধষর্ণের পাশাপাশি গৃহবধূর স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় আরেকটি মামলা হয়।

এই মামলায় আট আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। স্বাক্ষীর পর্যায়ে রয়েছে।