নিউজিল্যান্ডকে ৩৭২ রানে হারিয়ে সিরিজ জিতল ভারত

78
সিরিজ
Social Share

সিরিজ জিতল ভারত – প্রথম ইনিংসে ১০ উইকেটের কীর্তির পর ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসেও চার উইকেট নিয়েছেন কিউই স্পিনার এজাজ প্যাটেল। সব মিলিয়ে ওয়াংখেড়েতে তাঁর শিকার ২২৫ রানে ১৪ উইকেট। ভারতের বিপক্ষে কোনো বোলারের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডও গড়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই বাঁহাতি স্পিনার। ১৯৮০ সালে মুম্বাইয়েই ইয়ান বোথামের ১০৬ রানে নেওয়া ১৩ উইকেট এত দিন ছিল ভারতের বিপক্ষে সেরা বোলিং।

বোথামকে ছাড়িয়ে যাওয়া এজাজের অমন দুর্দান্ত সাফল্যের পরও মুম্বাই টেস্টে বড় হারের শিকার হয়েছে নিউজিল্যান্ড। গতকাল বিনা উইকেটে ৬৯ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে ১০৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। প্রথম ইনিসে ১৫০ করার পর এবার ৬২ রানে ফেরেন আগরওয়াল। এরপর চেতেশ্বর পূজারা ও শুভমান গিলের ৪৭ রানের দুটি ইনিংসের পাশাপাশি অক্ষর প্যাটেলের ২৬ বলে ৪১ রানের ঝড়ে স্কোর পৌনে তিন শ ছোঁয়ার পরপর দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করেন কোহলি। ফলে এই টেস্টে নিউজিল্যান্ডের টার্গেট দাঁড়ায় ৫৪০ রান।

প্রায় সাড়ে পাঁচ শ রানের অসম্ভব লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম ইনিংসে ৬২ রানে গুটিয়ে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের শুরুটা একদম ভালো হয়নি। ৫৫ রানের মধ্যে আউট টম ল্যাথাম, উইল ইয়ং ও রস টেলর। এরপর ড্যারিল মিচেল ও হেনরি নিকোলস খানিকটা প্রতিরোধ গড়লেও শেষ বেলায় ১ রানের ব্যবধানে ড্যারিল মিচেল ও টম ব্লান্ডেলও আউট হয়।

৫ উইকেটে ১৪০ রান নিয়ে আজ চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে নিউজিল্যান্ড। তবে ভারতীয় বোলারদের তোপের মুখে কিউইদের দ্বিতীয় ইনিংস থেমে গেছে মাত্র ১৬৭ রানে। ফলে  ভারত জয় পেয়েছে ৩৭২ রানের বিশাল ব্যবধানে। ফলে দুই ম্যাচের সিরিজ ১-০ তে জিতে নেয় কোহলির দল।

দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের পক্ষে রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও জয়ন্ত যাদব ৪টি করে উইকেট লাভ করেছেন। তবে ম্যাচসেরা হয়েছে মায়াঙ্ক আগারওয়াল। সিরিজসেরা হয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

৫ উইকেটে ১৪০ রান নিয়ে আজ চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করে নিউজিল্যান্ড। তবে ভারতীয় বোলারদের তোপের মুখে কিউইদের দ্বিতীয় ইনিংস থেমে গেছে মাত্র ১৬৭ রানে। ফলে  ভারত জয় পেয়েছে ৩৭২ রানের বিশাল ব্যবধানে। ফলে দুই ম্যাচের সিরিজ ১-০ তে জিতে নেয় কোহলির দল।

দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের পক্ষে রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও জয়ন্ত যাদব ৪টি করে উইকেট লাভ করেছেন। তবে ম্যাচসেরা হয়েছে মায়াঙ্ক আগারওয়াল। সিরিজসেরা হয়েছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।