সাত মাসে রেমিট্যান্সে প্রবৃদ্ধি ৩৫ শতাংশ

25
Social Share

রেমিট্যান্স কমে যাবে বলে যে আশঙ্কা করা হয়েছিল বাস্তবে তেমনটি ঘটেনি। করোনার মন্দার মধ্যে রেমিট্যান্স বাড়া শুরু হওয়ার পর থেকে ধারাবাহিকতা অব্যাহত আছে। প্রতিমাসেই বেড়েছে রেমিট্যান্সের পরিমাণ।

বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ১৯৬ কোটি ২৬ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। এতে চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারি) দেশে এক হাজার ৪৯০ কোটি ৭৩ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছে। বাংলাদেশ মুদ্রায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় এক লাখ ২৬ হাজার ৭১২ কোটি টাকা। রেমিট্যান্সের প্রবাহ চাঙ্গা থাকায় ইতিবাচক অবস্থায় রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে রিজার্ভ দাঁড়িয়েছে প্রায় ৪৩ বিলিয়ন ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে, গত জানুয়ারি মাসে প্রবাসীরা ১৯৬ কোটি ২৬ লাখ মার্কিন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ১৬ হাজার ৬৮২ কোটি টাকা (প্রতি ডলার ৮৫ টাকা ধরে)। যা আগের বছরের একই সময়ের চেয়ে ৩২ কোটি ৪১ লাখ ডলার বেশি।

চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে রেমিট্যান্স এসেছে এক হাজার ৪৯০ কোটি ৭৩ লাখ ডলার। গত অর্থবছরের একই সময় রেমিট্যান্স এসেছিল এক হাজার ১০৪ কোটি ৬৩ লাখ ডলার। সেই হিসাবে চলতি অর্থবছরের সাত মাসে প্রবাসী আয়ে প্রবৃদ্ধি দাঁড়িয়েছে ৩৪ দশমিক ৯৫ শতাংশ।