সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে : পলক

58
Social Share

তথ্য ও  যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক  বলেছেন, সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।
স্থানীয় স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম উন্নয়ন প্রচেষ্টাই হচ্ছে নতুন উদ্ভাবনের মূল ভিত্তি।
আজ রাতে  : স্টার্টআপ ল্যান্ডস্ক্যাপ ইন বাংলাদেশ এন্ড ইন্ডিয়া : টিচ স্টার্টআপস ট্রান্সফরমিং দ্যা ফিউচার শীর্ষক ওয়েবিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম কে দোরাইসামি।
প্রতিমন্ত্রী পলক আরো বলেন, সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে এবং এর উন্নয়ন ও বিকাশে আইডিয়া প্রকল্প এবং স্টাটআপ বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেড প্রতিষ্ঠায় নতুন নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসমূহের মাধ্যমে তরুণ উদ্ভাবকদের মেন্টরিং, কোচিং, হাইটেক পার্কসমূহে কোস্পেস, সিডমানি প্রদানসহ বিভিন্নভাবে সহায়তা করছে।
পলক বলেন, গত ৪ বছরে ফিনটেক, লজিস্টিক এবং ডিজিটাল ই-কমার্সসহ স্টার্টআপ সেক্টরে ৩০০ মিলিয়ন ডলারের বেশি বিদেশী বিনিয়োগ আকৃষ্ট করা সম্ভব হয়েছে।
তিনি বলেন, আইসিটি বিভাগের উদ্যোগে দেশে ৩৯টি হাইটেক, পার্ক ৬৪টি শেখ কামাল আইটি ইনকিউবেশন সেন্টার, ১৫টি শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব, চতুর্থ শিল্প বিপ্লব মোকাবেলায় শেখ হাসিনার ইনস্টিটিউট অফ ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও ইন্ডিয়ার মধ্যে স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে এবং এ খাতের উন্নয়নের ও বিকাশে এ ধরনের কর্মসূচি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এবং উভয়দেশের মধ্যে বন্ধুত্ব আরো সুদৃঢ় করবে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিনা এফ জেবিন।