সম্পর্কের ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো গোপন রাখা জরুরী

144
সম্পর্কের
Social Share

যে কোন সম্পর্কের কম বেশি সমস্যা হয়েই থাকে। কিন্তু সঙ্গীর সঙ্গে ঘটে যাওয়া সমস্যার কথা অন্যকে বলার মত বোকামি আর হতে পারে না। কিছু কিছু সমস্যা আছে যা আপনি আর সঙ্গী মিলেই ঠিক করতে হবে। বিষয়গুলো গোপন রাখতে না পারলে সম্পর্কের অবনতি ছাড়া আর ভালো কোন ফলাফল আশা করা যায় না।

Read more:

Secretary Yellen Gives Opening Remarks At House Financial Services Committee Hearing

তাই আপনি মানসিকভাবে হালকা হওয়ার জন্য কাউকে গোপন কথা বলে দেওয়ার আগে একটু ভাবুন আপনি ভুল করছেন কিনা।

যতটা সম্ভব সঙ্গীর খুঁত কম ধরবেন। মনে রাখবেন, কোনো মানুষই নিখুঁত নয়। প্রত্যেকেরই কিছু দোষ-গুণ থাকে। তাই আপনার সঙ্গীর যদি কোনো খুঁত থাকে তবে সেটা নিয়ে মজার করবেন না বা সবাইকে বলে বেড়াবেন না। আপনি যাদের বিশ্বাস করে বলবেন, তারাই আপনার অনুপস্থিতিতে সেই বিষয় নিয়ে হাসাহাসি করবে। এতে দুজনেরই সম্মান নষ্ট হবে।

পারিবারিক অশান্তি কিংবা সমস্যা হলো স্পর্শকাতর বিষয়। সম্পর্কে ঝগড়া কিংবা মনোমালিন্য হবেই। এটি নিয়ে নিজেদের মধ্যে কথা বলে মিটমাট করে ফেলুন। অযথা নিজেদের বিষয়গুলো জনে জনে বলে বেড়াতে যাবেন না। পারিবারিক সমস্যা পরিবারের মধ্যেই রাখুন। বাইরের মানুষ আপনাদের বিচার করার কেউ নন।

সব মানুষেরই কোনো না কোনো গোপন কথা থাকে, যেগুলো শুধু সঙ্গীই জানেন। হতে পারে তা ছোট্ট কোনো বিষয়। কিন্তু যত ছোট বিষয়ই হোক, গুরুত্বহীন ভাববেন না। সবাইকে সে কথা বলতে যাবেন না। আপনার যে বন্ধু বা বান্ধবী সেই বিষয়ে অল্প-স্বল্প জানে, তাকেও বলতে যাবেন না।

আরও পড়ুনঃ

তাসনুভা তিশা এর তৃতীয় বিয়ে

আপনার সঙ্গী মাসে কত টাকা আয় করেন, ব্যবসায় লাভ কেমন থাকে বা বেতন কেমন পান তা কাউকে বলতে যাবেন না। আপনারা কোথায় কত টাকা বিনিয়োগ করছেন, তাও বলতে যাবেন না। আবার সম্পর্কের জটিল সময়ে অর্থাৎ যদি এমন হয় যে আপনারা আলাদা আছেন, তবুও সে বিষয়ে কারও কাছে মুখ খোলার দরকার নেই।

নিজেদের মধ্যকার ঘনিষ্ঠতার কথা বাইরে প্রকাশ করলে তা দুজনের কারও জন্যই সুখকর হবে না। আপনাদের একান্ত কথাগুলো দুজনের ভেতরেই সীমাবদ্ধ রাখুন। কিছু বিষয় গোপন থাকলেই সুন্দর লাগে।